bangla news

খেলাপির ঋণ কমাতে কমিটি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-১৮ ১১:৪৬:১১ পিএম
বাংলাদেশ ব্যাংক

বাংলাদেশ ব্যাংক

ঢাকা: খেলাপি ঋণের দীর্ঘদিনের সমস্যা সমাধানে হঠাৎ করণীয় ঠিক করার চিন্তা মাথায় এসেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের। তাই সরকারিতে একটি ও বেসরকারি ব্যাংকের জন্য একটি মোট দু’টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি দু’টি খেলাপি ঋণ কমানোর বিষয়ে করণীয় নির্ধারণ করবে।

উভয় কমিটিতে বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ, অফসাইট সুপারভিশন বিভাগ, ব্যাংক পরিদর্শন বিভাগ ও ফিন্যান্সিয়াল স্ট্যাবিলিটি বিভাগের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়। তবে সরকারি ব্যাংকগুলোর খেলাপি ঋণ কমানোর কমিটিতে অর্থমন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের প্রতিনিধি রয়েছে। ওই কমিটি সরকারি ব্যাংকগুলোর পরিদর্শনের দায়িত্বে নিয়োজিত ডিবিআই-২ এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিভাগের প্রতিনিধি রাখা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

এসব ছাড় সুবিধা দেওয়ার পর জানুয়ারি-মার্চ সময়ে খেলাপি ঋণ প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকা বেড়ে ১ লাখ ১০ হাজার ৮৭৩ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। গত ডিসেম্বরে যা ছিলো ৯৩ হাজার ৯১১ কোটি টাকা।

খেলাপি ঋণ বেশি বৃদ্ধি পাওয়া ৭ ব্যাংকের এমডিকে ডেকে নিয়ে গত ১১ জুন জরুরি বৈঠক করে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ওই বৈঠকে খেলাপি ঋণ বৃদ্ধি ঠেকাতে করণীয় নির্ধারণে একটি কমিটি গঠন করা হয়। বেসরকারি ব্যাংকগুলোর কমিটি গঠন করা হয়েছে ১৮ জুন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, খেলাপি ঋণ বাড়ার কারণ জানতে ও কমিয়ে আনতে কমিটি গঠন করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কয়েকটি বিভাগ কমিটিতে রয়েছে।

খেলাপি ঋণ কমাতে নীতিমালা সংশোধন, অবলোপন নীতিমালা শিথিল করা এবং বিশেষ পুনঃতফসিল নীতিমালা জারি করা হয়েছে। এসব নীতিমালার কারণে ঋণ খেলাপিরা লাভবান হলেও সংকটে পড়বে ব্যাংকখাত। অবশ্য বিশেষ পুনঃতফসিল নীতিমালা আদালতের আদেশে সাময়িক স্থগিত রয়েছে।

এসব ছাড় সুবিধা দেওয়ার পর জানুয়ারি-মার্চ সময়ে খেলাপি ঋণ প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকা বেড়ে ১ লাখ ১০ হাজার ৮৭৩ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। গত ডিসেম্বরে যা ছিল ৯৩ হাজার ৯১১ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ সময়: ২৩৪৫ ঘণ্টা, জুন ১৮, ২০১৯
এসই/এএটি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-18 23:46:11