bangla news

বিনিয়োগকারীদের যাচাই-বাছাই করে জমি ক্রয়ের পরামর্শ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৬-১৬ ৬:৩০:৪৬ পিএম
ইউকেবিসিসিআই  প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশীসহ অন্যরা

ইউকেবিসিসিআই  প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠক শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশীসহ অন্যরা

ঢাকা: বিদেশি বিনয়োগকারীদের বাংলাদেশে যাচাই-বাছাই করে জমি ক্রয়ের পরামর্শ দিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশী। তিনি বলেছেন, যত্রতত্র জমি কিনে প্রতারিত না হয়ে জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রে আরো সচেতন হতে হবে। প্রয়োজনে বিনিয়োগকারীদের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সহায়তা দেবে বলেও জানান তিনি।

রোববার (১৬ জুন) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ইউকে বাংলাদেশ ক্যাটালিস্ট অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (ইউকেবিসিসিআই)  প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকে তিনি একথা বলেন। সিমার্ক গ্রুপের চেয়ারম্যান ইকবাল আহমেদের নেতৃত্বে ২৩ সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দল সাক্ষাতে অংশ নেয়।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে বিদেশি বিনিয়োগকারী দিনদিন বাড়ছে। এখন বিনিয়োগকারীরা তাদের বিনিয়োগের শতভাগ লাভ দেশে নিয়ে যেতে পারেন। এক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীদের সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। বিদেশি বিনিয়োগ আনার জন্য আমরা সারা পৃথিবী ঘুরে বেড়াচ্ছি। তবে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কিছু সমস্যা এখনও রয়ে গেছে। সেগুলো সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে। 

তিনি বলেন, আগামী এক থেকে দেড় বছরের মধ্যে রাশিয়ার বাজার উন্মুক্ত হবে। একইসঙ্গে আরো অনেকগুলো বাজার উন্মুক্ত হবে। কিন্তু আমাদের রফতানি খাতে মান নিয়ে সমস্যা রয়েছে। ফলে আমাদের আলু উদ্বৃত্ত থাকার পরও রফতানি করতে পারছি না। এজন্য আমাদের পণ্যের বৈচিত্র্যকরণসহ নতুন নতুন পণ্য রফতানিতে যেতে হবে। বিভিন্ন ব্যবসায় বিভিন্ন রকমের সমস্যা থাকে। তাই বিনিয়োগকারীরা তাদের সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে লিখিত আকারে আমাদের জানালে সমাধান করা হবে। এবিষয়ে সরকার ও মন্ত্রণালয় খুবই আন্তরিক। 

জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রে জটিলতার বিষয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রে আমাদের নিজেদেরও অনেক সময় সমস্যায় পড়তে হয়। তাই একজন বিনিয়োগকারী যাতে সমস্যায় না পড়েন সেজন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। একই সঙ্গে জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রে আরো সতর্ক হওয়ার পরামর্শ দেন তিনি। 

বাণিজ্য সচিব বলেন, বিদেশি বিনিয়োগকারীদের এদেশে জমি ক্রয়ের নিশ্চয়তা দিতে একটি ডাটাবেজ তৈরি করা হচ্ছে। যেখানে বিনিয়োগকারীরা কোথায় জমি ক্রয় করেন তার বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে। পাশাপাশি সমস্যা হলে দ্রুত সমাধানও করা যাবে বলে জানান তিনি। 

সিমার্ক গ্রুপের চেয়ারম্যান ইকবাল আহমেদ জানান, বৈঠকে বিনিয়োগকারীদের নিরাপত্তা ও নিশ্চয়তাসহ তিনটি বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সেগুলো হলো- বাণিজ্য বাড়াতে মানসম্মত উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদ দেওয়া হয়েছে, বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য প্রাইভেট পোর্ট নির্মাণ এবং বিনিয়োগকারীদের জমি ক্রয়ের ক্ষেত্রে নানান জটিলতা রয়েছে সেগুলো নিরসনে করণীয় সম্পর্কে আলোচনা করেছি। আলোচনা ভালো হয়েছে। একই সঙ্গে বাংলাদেশি প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের ছেলে মেয়েদের দেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সুযোগ সুবিধা দেওয়াসহ এই দক্ষ নতুন প্রজন্মকে বাংলাদেশে এনে বাংলাদেশের বাণিজ্য ক্ষেত্রে কাজে লাগানোর  পরামর্শ দেন তিনি।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮২৮ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০১৯
জিসিজি/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-06-16 18:30:46