ঢাকা, সোমবার, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯
bangla news

ইমেজ বাড়াতে পণ্যের স্মার্ট ব্র্যান্ডিং বাড়ানোর তাগিদ 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৬ ৯:০৪:২৭ পিএম
অনুষ্ঠােনে উপস্থিত অতিথিরা। ছবি:বাংলানিউজ

অনুষ্ঠােনে উপস্থিত অতিথিরা। ছবি:বাংলানিউজ

ঢাকা: বিশ্ববাজারে বাংলাদেশের ইমেজ বাড়াতে পণ্যের বহুমুখীকরণসহ স্মার্ট ব্র্যান্ডিং বাড়াতে হবে বলে মনে করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। 

তিনি বলেছেন, সুনির্দিষ্ট শিল্পক্ষেত্রে রফতানিযোগ্য বাজার উন্নয়নে ব্র্যান্ড অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এজন্য মানসম্মত পণ্য উৎপাদন, দক্ষতা বৃদ্ধিসহ প্রচার-প্রচারণা নিশ্চিত করতে হবে। 

রোববার (২৬ মে) রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে ‘বাজার সম্প্রসারণ এবং প্রচার-প্রচারণা: বাংলাদেশের সুনির্দিষ্ট উৎপাদনমুখী শিল্পক্ষেত্রের প্রতিযোগিতামূলক রপ্তানি কৌশল’ শীর্ষক এক জাতীয় সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাণিজ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। 

সেমিনারে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাণিজ্য সচিব মপিজুল ইসলাম। এছাড়া বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক্সপোর্টা কম্পিটিটিভনেস ফর জবস এর প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ওবায়দুল আজম এবং ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স করপোরেশনের প্রাইভেট সেক্টর স্পেশালিস্ট হোসনা ফেরদৌস সুমিসহ বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা ও ব্যবসায়ী নেতারা উপস্থিত ছিলেন৷ 

সেমিনারটি আয়োজন করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের এক্সপোর্ট কম্পিটিটিভনেস ফর জবস প্রজেক্ট।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেন, আমাদের পণ্যের মান বাড়ানোসহ নতুন নতুন বাজার সৃষ্টি করতে হবে। গার্মেন্টস খাতে গত ৩৫ বছরে অনেক কিছু হয়েছে। হাটি হাটি পা পা করে অনেক দূর এগিয়ে গেছে। এখন আমাদের বাজার ধরতে হবে। প্রতিযোগিতার সক্ষমতা বাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, আমরা এখন অনেক ভালো ভালো বাজারে প্রবেশ করেছি। ফলে আমাদের উত্তর উত্তর প্রবৃদ্ধি হচ্ছে। তবে আমারা এখনও সব বাজারে প্রবেশ করতে পারি নি। আমরা সে সকল বাজারে যেতে চাই। এজন্য আমাদের স্মার্টভাবে ব্র্যান্ডিং করতে হবে। একই সঙ্গে প্রচার করে ব্র্যান্ডিং বাড়ানোর পরামর্শ দেন তিনি।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আগামী বছর বঙ্গবন্ধুর জন্মশততম বার্ষিকী। এর পরের বছর বাংলাদেশের ৫০ বছর পূর্তি। এই দুইবছর আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই আমরা সব ব্যবসায়ীদের নিয়ে একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করে কাজ করবো। বিশ্ব বাজারে নিজেদের অবস্থান দৃঢ় করতে ও রপ্তানি বাড়াতে আমাদের ভালো কাজ করা দরকার। এজন্য প্রয়োজন আন্তর্জাতিক মানে ব্র্যান্ডের।

মফিজুল ইসলাম বলেন, আমাদের ব্যবসা ক্ষেত্রে সামনে অনেক চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমাদের পণ্যের বহুমুখীকরণ, গুণগতমানসহ সক্ষমতা বাড়াতে হবে। পাশাপাশি পণ্যের ব্র্যান্ডিংয়ে সৃজনশীলতা আনতে হবে। এটা করতে না পারলে বিশ্ববাজারে টিকে থাকা কষ্টর হবে। 

লেদার ফুটওয়্যার ম্যানুফেকচারার এক্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সাইফুল ইসলাম বলেন, ব্র্যান্ড ইমেজে বাংলাদেশ অনেক পিছিয়ে আছে। এই ইমেজ বাড়াতে প্রাইভেট খাতকে সঙ্গে নিয়েই কাজ করতে হবে। 

পাশাপাশি ২০২১ সাল আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এজন্য ওই বছর দেশে একটি আন্তর্জাতিকমানের একটি সেমিনার করে ব্র্যান্ডিং প্রচারণার পরামর্শ দেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৪ ঘণ্টা, মে ২৬, ২০১৯ 
জিসিজি/এমএ 

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-05-26 21:04:27