ঢাকা, বুধবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪ জিলহজ ১৪৪১

কৃষি

হাটে গিয়ে কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনলেন কাশিয়ানীর ইউএনও

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৫-২৪ ১২:১৫:১৯ এএম
হাটে গিয়ে কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনলেন কাশিয়ানীর ইউএনও সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনছেন ইউএনও এএসএম মাঈন উদ্দিন। ছবি: বাংলানিউজ

গোপালগঞ্জ: ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে হাটে গিয়ে সরাসরি কৃষকদের থেকে ধান কিনেছেন গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এএসএম মাঈন উদ্দিন।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) উপজেলার বেথুড়ী ইউনিয়নের রামদিয়া হাট থেকে ধান কেনেন তিনি।  

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা মো. হানিফ, রামদিয়া খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা রিজাউল করীম, ভাটিয়াপাড়া খাদ্য গুদাম কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন।

 

উপজেলা খাদ্য অফিস সূত্রে জানা যায়, কাশিয়ানী উপজেলা থেকে এবছর মোট ৩৭৯ মেট্রিক টন ধান কেনার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। যার প্রতিকেজি মূল্য ২৬ টাকা দরে ১০৪০ টাকা মণ দেওয়া হবে কৃষকদের। আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত চলবে ধান সংগ্রহ অভিযান।

কৃষক সাহিদ মোল্যা  বাংলানিউজকে বলেন, ধানের দাম নিয়ে হতাশায় ছিলাম। কিন্তু, সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান কেনায় ন্যায্যমূল্য পাচ্ছি। এভাবে প্রতিবছর কৃষকের কাছ থেকে ধান কিনলে বাঁচবে কৃষক।  

ইউএনও মাঈন উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, কঠোর পরিশ্রম করে ফসল ফলানোর পরেও ন্যায্য দাম পান না কৃষকরা। এবার ধান সংগ্রহে কোনো মধ্যস্বত্বভোগী যেন সুযোগ নিতে না পারে এবং কৃষক ধানের ন্যায্যামূল্য পান সেজন্য সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান কেনা কর্মসূচি হাতে নেওয়া হয়েছে।  

সরকার নির্ধারিতমূল্যে ধান বিক্রি করতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন কৃষকরা।

বাংলাদেশ সময়: ২০১০ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০১৯
এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa