ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ২৪ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

বাণিজ্য বাড়াতে ব্যবসায়ীদের ফোরাম গঠন করতে হবে 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১৫ ৭:২৪:২৯ পিএম
কানাডার রাষ্ট্রদূত বেনোয়েট প্রিফনটেইনের সঙ্গে কথা বলছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

কানাডার রাষ্ট্রদূত বেনোয়েট প্রিফনটেইনের সঙ্গে কথা বলছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

ঢাকা: বাণিজ্য বাড়াতে বাংলাদেশে ও কানাডার ব্যবসায়ীদের ফোরাম গঠন করার আহ্বান জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেন, উভয় দেশের ব্যবসায়ীদের যোগাযোগ বাড়ানোর জন্য একটি ফোরাম গঠন করা প্রয়োজন। এতে উভয় দেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে আলোচনার প্ল্যাটফর্ম তৈরি হবে। 

সোমবার (১৫ এপ্রিল) সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত কানাডার রাষ্ট্রদূত বেনোয়েট প্রিফনটেইনের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে একথা বলেন তিনি। 

এসময় বাণিজ্য সচিব মো. মফিজুল ইসলাম ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (রপ্তানি) তপন কান্তি ঘোষ উপস্থিত ছিলেন।

টিপু মুনশি বলেন, কানাডা বাংলাদেশে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ আরো বাড়াতে আগ্রহী। দুই দেশের ব্যবসায়ীদের এজন্য এগিয়ে আসতে হবে। উভয় দেশের ব্যবসায়ীরা পারস্পরিক দেশে সফর করে সরকারের কাছে বাণিজ্য ও বিনিয়োগের বিষয়ে সুপারিশ করলে উভয় দেশ সে বিষয়ে পদক্ষেপ নেবে।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ব্যাপক বিনিয়োগের সুযোগ সৃষ্টি করেছে। ব্যবসায়ীদের সুযোগ-সুবিধা বাড়িয়েছে। কানাডার ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে বেশি লাভবান হবেন। বাংলাদেশ সরকার বিনিয়োগকারীদের বিশেষ সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে। কানাডায় বাংলাদেশের পণ্যের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। 

কানাডায় বাংলাদেশের রপ্তানি রেড়েই চলছে। গত অর্থবছরে বাংলাদেশ কানাডায় ১১১৮.৭১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য রপ্তানি করেছে, একই সময়ে পণ্য আমদানি করেছে ৪৯৮.১৬ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মূল্যের পণ্য। আগামী দিনগুলোতে বাংলাদেশে কানাডার বিনিয়োগ ও বাণিজ্য আরো বাড়বে।

কানাডার রাষ্টদূত সাংবাদিকদের বলেন, বাংলাদেশের অনেক উন্নয়ন হয়েছে। বাইরে সে রকম প্রচারণা নেই। কানাডা বাংলাদেশের ঘনিষ্ঠ বন্ধু রাষ্ট্র, বাংলাদেশের উন্নয়নে কানাডা খুশি। রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার বিষয়ে কানাডা প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখবে। 

এর আগে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি ঢাকায় নিযুক্ত স্লোভেনিয়ার রাষ্ট্রদূত জোজেফ ড্রোফেনিকের সঙ্গে বৈঠক করেন। এসময় উভয় দেশের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বাড়ানোর জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়ার উপর গুরুত্বারোপ করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৫, ২০১৯
জিসিজি/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14