ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪২৬, ২৪ এপ্রিল ২০১৯
bangla news

নারী উদ্যোক্তাদের পণ্য বিক্রিতে ‘আউড়ি’র যাত্রা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৪-১২ ১২:৪৭:৩০ পিএম
নারী উদ্যোক্তাদের পণ্য বিক্রয়কেন্দ্র ‘আউড়ি’র যাত্রা শুরু হয়েছে, ছবি: সংগৃহীত

নারী উদ্যোক্তাদের পণ্য বিক্রয়কেন্দ্র ‘আউড়ি’র যাত্রা শুরু হয়েছে, ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা:  ন্যায্য বাণিজ্যের অঙ্গীকার নিয়ে যাত্রা শুরু করলো প্রান্তিক নারী কৃষক-উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত খাদ্য ও পণ্য জাতীয় পর্যায়ে সরাসরি বিক্রয়কেন্দ্র ‘আউড়ি’।

আউড়িতে পাওয়া যাবে-ভেজাল ও বিষমুক্ত শাক-সবজি, খাদ্য ও কৃষিপণ্য, হস্ত ও তাঁত শিল্পের পণ্য। রয়েছে গ্রামীণ খাবারের সমাহার। ক্রেতাদের জন্য আউড়ি উন্মুক্ত থাকবে প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) রাজধানীর গুলশান-১ নম্বরের ৮ নম্বর রোডে আনুষ্ঠানিকভাবে আউড়ির উদ্বোধন করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ‘প্রান্তিক পর্যায়ের নারী কৃষকেরা পণ্য উৎপাদন করলেও বিক্রির সুযোগ পান না। আউড়িতে ন্যায্য মূল্য পাবেন।

বাজার ব্যবস্থাপনা ও নারীর ক্ষমতায়নের জন্য এটি অত্যন্ত জরুরি।’ ভেজালমুক্ত ও নিরাপদ পণ্যের এ বিক্রয়কেন্দ্রের প্রশংসা করে এ ধরনের উদ্যোগকে এগিয়ে নিতে সিটি করপোরেশন কাজ করবে বলে জানান মেয়র।

আয়োজকরা জানান, আউড়ির উদ্দেশ্য- নারী উৎপাদকদের বাজারের মূলধারার সঙ্গে সংযোগ তৈরিতে সহায়তা করে তাদের ব্যবসা বাড়াতে সহায়তা করবে। নারী উদ্যোক্তাদের সরাসরি এ বিক্রয়কেন্দ্রকে ব্যবসায়িক কেন্দ্র এবং তথ্য কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করবেন। পাশাপাশি লাভজনকভাবে এ ব্যবসা চালানোর মত দক্ষতা অর্জন করবেন। 

সভাপতির বক্তব্যে অ্যাকশনএইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কবির বলেন, ‘অনেক ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তা আছেন, যারা তাদের পণ্য নিয়ে বাংলাদেশের স্থানীয় ও জাতীয় পর্যায়ের বাজারে প্রবেশের ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করছেন।

তিনি আরও বলেন, এ জাতীয় বিক্রয়কেন্দ্র নারী উৎপাদকদের বাজারের মূলধারার ব্যবসার সঙ্গে তাদের পণ্যগুলোর সংযোগের মাধ্যমে ব্যবসা বাড়াতে সহায়তা করবে। এর মাধ্যমে ক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তাদের ক্ষমতায়নের পথ প্রসারিত হবে।’

মিডিয়া ব্যক্তিত্ব আব্দুর নূর তুষার বলেন, ‘মুনাফাভিত্তিক বাজার ব্যবস্থায় কৃষকেরা ন্যায্য মূল্য পান না। এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমরা চাই উৎপাদনকারীরা যেন তাদের পণ্যের মূল্য নিজেরাই পান এবং উপকৃত হন।’ 

নারী কৃষক ও ক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য জাতীয় পর্যায়ে সরাসরি বিক্রয়ের জন্য ‘আউড়ি’ বিক্রয়কেন্দ্রটির যাত্রা শুরু। ‘কেন্দ্রীয় কৃষক মৈত্রী (কেকেএম)’ পরিচালিত আউড়িরে সার্বিক সহযোগিতা রয়েছে অ্যাকশনএইড বাংলাদেশ।

শুভেচ্ছা বক্তব্যে কেন্দ্রীয় কৃষক মৈত্রীর সভাপতি সাজেদা বেগম বলেন, ‘এ প্রথম সংগঠনের নারীরা তাদের উৎপাদিত পণ্য সরাসরি ঢাকায় এসে বিক্রি করতে পারছেন। এটা আমাদের জন্য একটা বড় অর্জন। এতে নারী কৃষক ও উদ্যোক্তারা উৎসাহিত হবেন।’ 

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন, পরিচালক ও অভিনেতা আফজাল হোসেন, বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) সিনিয়র রিসার্চ ফেলো নাজনীন আহমেদ, বাংলাদেশে নিযুক্ত নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের ফার্স্ট সেক্রেটারি (ফুড সিকিউরিটি) আদেমা ডার্ক ও অভিনেত্রী আফসানা মিমি প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১২৩৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ১১, ২০১৯
এসই/ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14