ঢাকা, বুধবার, ১২ আষাঢ় ১৪২৬, ২৬ জুন ২০১৯
bangla news

সিলেটে বাণিজ্যমেলার মাঠ করে দেওয়ার আশ্বাস টিপু মুনশির

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৩-০৯ ৯:২২:২২ পিএম
অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, ছবি: বাংলানিউজ

অনুষ্ঠানে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, ছবি: বাংলানিউজ

সিলেট: আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার জন্য সিলেটে আলাদা মাঠ করার আশ্বাস দিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

মন্ত্রী বলেছেন, কোথায় মাঠ করতে হবে, কাগজপত্র পাঠান, আমি ব্যবস্থা নেবো। একইসঙ্গে মাঠের জন্য বরাদ্দ পেতে লিখিতভাবে আবেদন করতেও বলেন তিনি।

শনিবার (০৯ মার্চ) বিকেলে সিলেট মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির উদ্যোগে নগরীর শাহী ঈদগাহ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে আয়োজিত আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমন আশ্বাস দেন টিপু মুনশি।

এসময় তিনি বলেন, এখানকার মূল সমস্যা বাণিজ্যমেলা করার মতো মাঠ নেই। একটা মেলা করতে প্রস্তুতি ও প্রচারে বেশ কয়েক মাস লেগে যায়। এই মাঠে তিন থেকে চার মাস মেলার প্রস্তুতি চললে খেলা করার পরিবেশ থাকবে না। তাই মেলা করার জন্য শাহী ঈদগাহ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামকে বাদ দিতে হবে। কেননা, এটা খেলার মাঠ। এর পরিবর্তে আরেকটি মাঠের ব্যবস্থা করার জন্য বলেন তিনি। যেটাতে প্রতি বছর বাণিজ্যমেলা করা যেতে পারে। তখন সমস্যা হবে না। তাতে অনুমোদন পেতেও সমস্যা হবে না।

বাণিজ্যমেলার প্রয়োজন সম্পর্কে তিনি বলেন, মেলার মাধ্যমে আমাদের দেশের পণ্যগুলোর প্রচার-প্রসার ঘটে। ঢাকায় হয়ে যাওয়া আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় ২০০ কোটি টাকার উপরে অর্ডার মিলেছে।

তিনি বলেন, সিলেটে ব্যবসাবান্ধব পরিবেশ গড়ে উঠতে পারে। শিল্প কলকারখানা গড়ে তোলা যেতে পারে। এই বিভাগের উৎপাদিত চা পাতা বিদেশে রফতানি হয়। শ্রীমঙ্গলে চা অকশন কেন্দ্র গড়ে উঠেছে। এখন একবার অকশন হয়, আগামীতে দু‘বার হবে। সিলেটেও শীতলপাটির ঐতিহ্য রয়েছে। এছাড়া অন্য পণ্যগুলোরও প্রচার-প্রসার ঘটলে বিদেশে রফতানি হবে।
 
ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, সব ব্যাপারে আমরা পজিটিভ চিন্তা করতে পারি। এই সরকার ব্যবসাবান্ধব। প্রধানমন্ত্রী বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়ার পর আমাকে ব্যবসার প্রসারে পরামর্শ দিয়েছেন।

ব্যবসায়ীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে মন্ত্রী বলেন, সিলেট থেকে চট্টগ্রামে সরাসরি ফ্লাইট নেই। এখানের ব্যবসায়ীদের ঢাকা হয়ে চট্টগ্রাম যেতে হয়। সিলেট থেকে চট্টগ্রামে সরাসরি ফ্লাইট চালু হলে এখানকার ব্যবসায়ীরা উপকৃত হবেন। অন্তত প্রতিদিন যাতে একটা করে ফ্লাইট সিলেট থেকে চট্টগ্রামে যায়, এজন্য তিনি কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানিয়েছেন।
 
বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই ব্যবসার জন্য সিলেটে একটা সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি হোক। ব্যবসায় প্রতিযোগিতা হোক। তাতে ভোক্তারাও সুবিধা পাবেন।

তিনি আরও বলেন, সবার চেষ্টায় বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়ে উঠুক। যে বাংলাদেশ গঠনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। একটা অর্থনিতকভাবে সমৃদ্ধ, শিক্ষিত, স্বাস্থ্যবান অগ্রসর দেশ চাই আমরা। অসাম্প্রদায়িক চেতনায় মুক্তিযুদ্ধের একটি বাংলাদেশ গড়তে হবে।

মেট্রোপলিটন চেম্বারের সভাপতি হাসিন আহমদের সভাপতিত্বে মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি কামরুল আহসান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট ব্যবসায়ী ঐক্য কল্যাণ পরিষদের সভাপতি শেখ মকন মিয়া ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালক শাফিউল আলম নাদেল।

এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন মেলা কমিটির আহ্বায়ক ও অ্যাসোসিয়েশন ট্রাভেল এজেন্ট বাংলাদেশের (আটাব) সিলেট অঞ্চলের সভাপতি আবদুল জব্বার, চেম্বার পরিচালক আবু হুরায়রা প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ঘণ্টা ২১২০, মার্চ ০৯, ২০১৯
এনইউ/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   সিলেট বাণিজ্যমেলা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2019-03-09 21:22:22