ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৪ মে ২০১৯
bangla news

বাণিজ্যমেলায় ৩০ দিনে ৩৭ অভিযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-০৮ ২:৫৬:৫১ পিএম
বাণিজ্যমেলা প্রাঙ্গণে ক্রেতাদের ভিড়/ বাংলানিউজ

বাণিজ্যমেলা প্রাঙ্গণে ক্রেতাদের ভিড়/ বাংলানিউজ

ঢাকা: ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলায় ক্রেতাদের অভিযোগ আর অজুহাত ছিলো বেশ খানিকটা কম। মেলায় রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) কর্মকর্তাদের সামনেই প্রতিনিয়ত বসছেন হকার, ভিক্ষুক। গ্রেফতার অভিযান পরিচালনা করেও মেলা প্রাঙ্গণ হকারমুক্ত করতে পারেনি পুলিশ। অন্যদিকে ভোক্তা পর্যায়ে অভিযোগ ছিলো হাতেগোনা।

মেলার ৩০ দিনে (শুক্রবার, ৮ ফেব্রুয়ারি) ভোক্তা অধিকার অধিদফতরে অভিযোগ ছিলো মাত্র ৩৭টি। এর মধ্যে ৭টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়। বাকিগুলো সমঝোতা আর প্রমাণ না থাকায় শুধুমাত্র নথিবদ্ধ করা হয়েছে।

আর অধিদফতরের নিজ উদ্যোগে মোট ৩০ দিনে ৪১টি অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। 

ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদফতর সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার ভিআইপি গেট দিয়ে প্রবেশ করে একটু এগোতেই হাতের বামে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের অস্থায়ী কার্যালয়। মেলায় বিভিন্ন প্রতারণায় শিকার ভোক্তারা এখানে এসে অভিযোগ করতে পারেন। তবে এবারের মেলার ৩০তম দিন পর্যন্ত ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরে মাত্র ৩৭টি অভিযোগ জমা পড়েছে।

অধিদফতরের কর্মকর্তারা বলছেন, এবারের মেলায় অভিযোগের সংখ্যা তুলনামূলক কম। হয়তো ভোক্তারা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন না বলেই তাদের অভিযোগের সংখ্যা কম। অথবা তারা এখনও সচেতন না হওয়ায় কোনো অভিযোগ করছেন না।

শুক্রবার পর্যন্ত মোট অভিযোগের সংখ্যা ৩৭টি। এর মধ্যে জরিমানা করা হয়েছে ৭টি প্রতিষ্ঠানকে। ৫টি অভিযোগের কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। বাকি অভিযোগ উভয়পক্ষের মধ্যে সমঝোতা করে দেওয়া হয়েছে।

জরিমানা হওয়া প্রতিষ্ঠানগুলো মধ্যে মূল্য বেশি রাখায় রংপুর মেটালকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ইটালিয়ানো পণ্য না পাওয়ায় ইটালিয়ানো প্যাভিলিয়নকে ৩০ হাজার টাকা, ক্যাশ ব্যাক না দেওয়ায় ক্লাসিক্যাল হোমটেক্সকে ১০ হাজার টাকা, মূল্য বেশি রাখায় শাহজাদা স্টোরকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। ২৫ জানুয়ারি খাবারের মূল্য বেশি রাখায় হাজীর বিরিয়ানিকে ১০ হাজার টাকা, মূল্য তালিকা না থাকায় নান্না বিরিয়ানি ও কাবাবকে ২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া একইদিন ১টি পণ্য কিনে অন্যটি ফ্রি না দেওয়ায় কানিজ এন্টারপ্রাইজকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আর ভোক্তা অধিকার অধিদফতরের নিজ উদ্যোগে মোট ৩০ দিনে ৪১টি অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এসময় মোট ২ লাখ ৯৯ টাকা টাকা জরিমানা করেছে।

জোসনা আক্তার নামের এক দর্শনার্থী বলেন, এবার পণ্যের দাম কিছুটা বেশি হলেও তালিকা টানানো আছে স্টলে। তবে খাবারের দাম নিয়ে আপত্তি আছে। যদিও তারা মূল্য তালিকা রাখছে। তার মতে, অনেকেই প্রতারণার শিকার হচ্ছেন। তবে সচেতন না হওয়ায় অনেক ভোক্তা অভিযোগ করছেন না।

এ বিষয়ে ভোক্তা অধিদফতরের সহকারী পরিচালক (গবেষণা) প্রণব কুমার প্রামাণিক বলেন, আমরা শুধু ভোক্তার অভিযোগের অপেক্ষায় থাকছি না। নিজেরাও নিয়মিত মেলায় ঘুরে দেখছি। সন্দেহ হলে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। আমরা ভোক্তার অধিকার আদায়ে মেলার শেষ দিন পর্যন্ত আছি।

রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) তথ্যানুযায়ী, মাসব্যাপী এ মেলার পর্দা নামবে শনিবার (০৯ ফেব্রুয়ারি)। 

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০১৮
ইএআর/জেডএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বাণিজ্যমেলা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2019-02-08 14:56:51