ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৯ মে ২০১৯
bangla news

কাড়াকাড়ি অফার চলছে বাণিজ্যমেলায়

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০২-০৮ ২:৫০:২৩ পিএম
স্টলে ক্রেতাদের ভিড়-ছবি-বাংলানিউজ

স্টলে ক্রেতাদের ভিড়-ছবি-বাংলানিউজ

ঢাকা: আর একদিন পরেই পর্দা নামছে ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার। শেষ সময়ে নিজ নিজ স্টলের পণ্য বিক্রি করতে দেওয়া হচ্ছে কাড়াকাড়ি অফার। স্টলভেদে চলছে ১৫ থেকে ৬০ শতাংশ পর্যন্ত ডিসকাউন্ট। কোনো কোনো পণ্য একটি কিনলে আবার আরেকটি মিলছে সম্পূর্ণ ফ্রিতে।

স্টল মালিকদের দেওয়া ছাড় আর অফারগুলো লুফে নিচ্ছেন ক্রেতারা। এদিন সকাল থেকে প্রতিটি স্টলে ছিলো ক্রেতা-দর্শনার্থীদের উপচেপড়া ভিড়। ক্রেতাদের ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে স্টল কর্তৃপক্ষকে। 

শুক্রবার (৮ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অনুষ্ঠিত ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার বিভিন্ন প্যাভিলিয়ন ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

মেলায় পণ্য কিনলে কুষ্টিয়া কুটির দিচ্ছে ৫০০ টাকা পর্যন্ত ছাড়। তাছাড়া তাদের এ স্টলে রয়েছে বিশেষ অফার। আপনি চাইলে প্যাকেজ ও প্যাকেজ ছাড়া পণ্য কিনতে পারবেন।

থাইল্যান্ড গ্যালারি দিচ্ছে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ডিসকাউন্ট। লোন থ্রি পিস পাওয়া যাচ্ছে ৬৫০ টাকায়। দুই পিস পাওয়া যাচ্ছে এক হাজার টাকায়।

সসার বস্ত্রমেলা দিচ্ছে বিশেষ ছাড়। ১২০০ টাকার টপস পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ৬৫০ টাকায়। এক হাজার টাকার পাঞ্জাবি মিলছে ৫৫০ টাকায়।

রংবেরং টেক্সটাইলের কাড়াকাড়ি ছাড় চলছে। এখান থেকে তিনটি থ্রি পিস কিনতে পারবেন মাত্র ৫৯৯ টাকায়। 

মেলায় আলী বাবা ডোর দিচ্ছে ১৫ শতাংশ ছাড়। পারটেক্স ফার্নিচারে সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ ছাড়সহ রয়েছে র‌্যাফেল ড্রয়ের ব্যবস্থা। এতে রয়েছে হাজার হাজার টাকার উপহার।

ইলেকট্রনিক্স সামগ্রীতে রয়েছে বিশেষ ছাড়। মেলায় ওয়ালটন, ভিশন, মিনিস্টার, সনি, স্যামসং দিচ্ছে ওয়ারেন্টিসহ বিশেষ ছাড়। তাছারা পণ্য কিনলে লটারির মাধ্যমে দেশ-বিদেশে ঘোরার সুযোগও মিলছে।

এছাড়া মেলায় বিদেশি প্যাভিলিয়নের ছোট স্টলগুলোতে চলছে বিশেষ ডিসকাউন্ট। এসব স্টলগুলোতে মাত্র ৩০ টাকায় আপনি কিনতে পারবেন গলার চেইন, হাতের চুড়ি, ব্যাসলেট, পুতির মালা, মাথার ব্যান্ড, মাথার কাকড়া, কানের ফুল, মালা, ক্লিপসহ আরও অনেক পণ্য। ১২০ টাকায় কেনা যাবে ফ্রাই প্যান, সফট প্যান। তাছাড়া বোরকা কিনতে পারবেন ৫০ শতাংশ ডিসকাউন্টে। 

ছাড়ে কেনার সুযোগ রয়েছে জিরা, আচার, জুস, ফল, কসমেটিকস সামগ্রী, জুয়েলারি সামগ্রী। রয়েছে ঘর সাজানোর সব পণ্যও।

সেতু ইসলাম নামের এক দর্শনার্থী বলেন, মেলার শেষ দুইদিন ছাড় থাকে বেশি। তাই একটু ভিড় হলেও চলে এসেছি। তিনি বলেন, আমি মূলত মায়ের জন্য কয়েকটা শাড়ি কিনতে এসেছি। কেনা হয়েছে, এখন ঘুরে দেখছি অন্য কিছু কেনা যায় কিনা।

রোকেয়া নামে অন্য এক দর্শনার্থী বলেন, যেহেতু মেলা শেষ মুহূর্তে এসেছে তাই আজ ঘোরার চেয়ে কেনাকে প্রাধান্য দেব। খুব ভালো লাগছে আজ দর্শনার্থীর চেয়ে ক্রেতা বেশি, আবার পণ্যে ছাড়ও বেশি।

ইয়াছিন আলী নামে এক বিক্রেতা বলেন, আজ আমাদের এখানে যে মাল নেবেন ৫০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় আছে। মেলার একদিন বাকি থাকায় ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৯ 
ইএআর/আরআর

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   বাণিজ্যমেলা
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14