[x]
[x]
ঢাকা, শনিবার, ৬ মাঘ ১৪২৫, ১৯ জানুয়ারি ২০১৯
bangla news

আলু চাষে স্বপ্ন দেখছেন ফুল মিয়া 

বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য বাপন, ডিভিশনাল সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০১-১১ ১০:২৫:৪৩ এএম
আলু ক্ষেত পরিচর্যায় ব্যস্ত ফুল মিয়া। ছবি: বাংলানিউজ

আলু ক্ষেত পরিচর্যায় ব্যস্ত ফুল মিয়া। ছবি: বাংলানিউজ

মৌলভীবাজার: মাত্র দু-আড়াই সপ্তাহ আগে লাগানো আলুর চারায় গজিয়েছে নতুন কুঁড়ি। তাই আলু ক্ষেত পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কৃষক।

পৌষের শেষ সপ্তাহে দুপুরের মায়াবী রোদ উত্তাপ ছড়াচ্ছে আলু ক্ষেতে। ছোট চারাগুলো বড় মমতায় পরিচর্যা করছেন কৃষক। সম্প্রতি হবিগঞ্জের চুনারুঘাট রানিগাও ইউনিয়নে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়।

চুনারুঘাট রানিগাও ইউনিয়নের আলু চাষি ফুল মিয়া বাংলানিউজকে বলেন, প্রতিদিন সময় করে কয়েকঘণ্টা জন্য আলু ক্ষেত পরিচর্যার জন্য আসি। আগাছা পরিস্কার, সার দেওয়াসহ নানা কাজ একাই করি। এ চারা গাছগুলোর বয়স দু’সপ্তাহের একটু বেশি। আধা কেয়ার (১৫ শতাংশ) জমিতের দেশি লাল আলু চাষ করেছি। প্রায় দেড়-দুই মাস লাগবে এটি বড় হতে।

তিনি বলেন, পরিবারে আমার বাবা-মা, এক মেয়ে ও স্ত্রী আছে। বাবা এ এলাকার রংমিস্ত্রি। রঙের কাজের পাশাপাশি তিনিও সবজি চাষ করতেন। এখন বয়স হওয়াতে আর করতে পারেন না। আমি বাবার রঙের কাজটা ধরেছি।

পড়াশোনার কথা জানতে চাইলে তিনি আক্ষেপের সঙ্গে বলেন, আর বলবেন না স্যার। মাত্র অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়েছি। নিজ না পইড়া অন্য ভাই-বোনদের পড়াইছি। তারা মানুষ হইছে ঠিকই, আমি পরিবারের বড় সন্তান বলে তাদের মত হতে পরলাম না। আমি বাবা-মাকে আমার কাছে রাখছি এবং নিয়মিত তাদের সেবাযত্ন করছি।

প্রতি কেজি আলুর দাম এখন চল্লিশ থেকে পঞ্চাশ টাকা। এ আধা কেয়ার জমিতে প্রায় দেড় মণ আলু ধরবে। আশা করি ফলন ভালোই হবে। সেই আশায় ভালোভাবে পরিচর্যায় করছেন বলে জানান ফুল মিয়া।

বাংলাদেশ সময়: ১০২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১১, ২০১৯ 
বিবিবি/ওএইচ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14