ঢাকা, বুধবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২২ মে ২০১৯
bangla news

বাজার মনিটরিং কমিটি পুনর্গঠন করেছে সরকার

গৌতম ঘোষ, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১২-২৪ ২:১০:৩৭ এএম
বাজার মনিটরিং কমিটি

বাজার মনিটরিং কমিটি

ঢাকা: আসন্ন জাতীয় একাদশ সংসদ নির্বাচনের পর নিত্যপণ্যের বাজার সহনীয় ও পণ্যের অস্বাভাবিক মজুদ ঠেকানোসহ সরবরাহ ঠিক রাখতে বাজার মনিটরিং কমিটিগুলোকে পুনর্গঠন করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

নানা অজুহাতে বর্তমান বাজার মনিটরিং টিম তেমন কাজ করতে পারছে না বিধায় গত বৃহস্পতিবার (২০ ডিসেম্বর) বাজার মনিটরিং প্রক্রিয়া জোরদার করতে সরকার গঠিত ১৪টি মনিটরিং টিম পুনর্গঠন করা হয়েছে। বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদের নির্দেশে জরুরি ভিত্তিতে কমিটিগুলো পুনর্গঠন করা হয় বলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়। 

সূত্র জানায়, ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে রাজধানীর দুই সিটি কপোরেশনের বাজারগুলো মনিটরিং করবে। এসময়ে গঠিত ১৪টি টিম ঢাকা শহরের বিভিন্ন পাইকারি ও খুচরা বাজার নিয়মিতভাবে পরিদর্শন করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সামগ্রীর মূল্য, মজুদ ও সরবরাহ পরিস্থিতি সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করবে। পাশাপাশি কোনো ধরনের অস্বাভাবিক অবস্থা বা পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে তাৎক্ষণিকভাবে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ এবং ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে হবে।

জানা যায়, সাধারণত কমিটিগুলোর প্রধান করা হয় সরকারের উপ-সচিব পদ মর্যদার ১৪ জন কর্মকর্তাকে। তাদের অধিকাংশই বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও এর অধীনের সংস্থায় কর্মরত। এ সময়ের মধ্যে এ ১৪ জন কর্মকর্তার অনেকেই বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে অন্য মন্ত্রণালয় বা দফতরে বদলি হয়ে গেছেন। কেউ পদোন্নতি পেয়েছেন, কেউ অবসরে গেছেন। আবার কেউ-কেউ অন্য মন্ত্রণালয় থেকে বদলি হয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে যুক্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন, যারা বাজার মনিটরিং কমিটিতে নেই। অথচ বর্তমানে অধিকাংশ কমিটি প্রধানের পদ খালি। তাই কমিটিগুলোকে পুনর্গঠন করেছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। 

সারাবছর বাজার মনিটরিংয়ের জন্য গঠিত কমিটিতে উপ-সচিব পদ মযর্দার একজন কর্মকর্তার নেতৃত্বে প্রতিটি কমিটির ছয় মাস করে বাজারে মনিটরিংয়ের দায়িত্ব পালন করার কথা। প্রতিটি কমিটিতেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, কৃষি মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয়, ঢাকা জেলা প্রশাসন, ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন, এফবিসিসিআই, বাংলাদেশ ট্যারিফ কমিশিন ও ঢাকা মেট্রোপলিটান পুলিশের প্রতিনিধি অন্তর্ভুক্ত রয়েছেন।

সূত্র আরও জানায়, কমিটিগুলো বাজার মনিটরিং করতে গিয়ে পণ্যের আমদানি, উৎপাদন, মজুদ ও সরবরাহ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করবে। কমিটিগুলোকে প্রতিদিনের বাজার মনিটরিং শেষে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিবের কাছে সুপারিশসহ প্রতিবেদন দেওয়ার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। একইসঙ্গে প্রতিটি জেলায় জেলা প্রশাসকের তত্ত্বাবধানে গঠিত বাজার মনিটরিং কমিটিও বাজার পরিদর্শন করে কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে প্রতিবেদন পাঠাতে হবে।

মনিটরিং কমিটিগুলোকে প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করার ক্ষমতা দেওয়া হবে। ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে কমিটি অবৈধ মজুদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবে। প্রয়োজনে অবৈধ মজুদে হানা দিয়ে মজুদ করা পণ্য অবমুক্ত করতে পারবেন বাজার মনিটরিং কমিটি। অতীতের মতো এবারও বাজারের প্রতিটি দোকানের সামনে নিত্যপণ্যের মূল্য তালিকা টানিয়ে রাখা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। 

এছাড়া প্রতিটি টিম বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিবের পরামর্শে নির্ধারিত বাজারসহ আশেপাশের বিপণী বিতান ও সময়ে সময়ে নির্দেশিত অন্যান্য পাইকারি ও খুচরা বাজার পরিদর্শন করবে। পরিদর্শন শেষে লিখিতভাবে সুপারিশসহ প্রতিবেদন বাণিজ্য সচিবের কাছে দিতে হবে। একই সঙ্গে প্রতিটি টিম বাজার কমিটির সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক ও দোকানদারের সঙ্গে আলোচনা করে উক্ত বাজারের নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য ও সরবরাহ স্থিতিশীল রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। কোন টিমের লিডার অনুপস্থিত থাকলে তার অধীনে জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার বাজার মনিটরিংয়ের দায়িত্ব পালন করবেন। পরবর্তী কমিটি গঠন না হওয়া পর্যন্ত এ টিম বাজার মনিটরিংয়ের দায়িত্ব পালন করবে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে সারা বছরের জন্য গঠিত এ ১৪টি মনিটরিং টিম গঠিত হলেও টিমগুলো মূলত কাজ করে রোজার সময়। অন্য সময় বাজার অস্থিতিশীল না হলে খুব একটা বাজার মনিটরিং করা হয় না। বর্তমানে যে ১৪টি মনিটরিং কমিটি রয়েছে, সেগুলো গঠিত হয়েছে ২০১৮ সালের ৫ জুন। গত ১ জুলাই থেকে কার্যকর হওয়া কমিটির মেয়াদ রয়েছে আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ১ জানুয়ারি থেকে এমনিতেই দ্বিতীয় দফায় গঠিত নতুন কমিটির কাজ করার কথা। এ কারণেই কমিটিগুলো পুনর্গঠন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০২১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮ 
জিসিজি/টিআর/জিপি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   খুচরা বাজার পাইকারি বাজার বাজারদর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2018-12-24 02:10:37