[x]
[x]
ঢাকা, বুধবার, ৯ কার্তিক ১৪২৫, ২৪ অক্টোবর ২০১৮
bangla news

ডিজিটাল পদ্ধতিতে সেবা পৌঁছাচ্ছে প্রত্যন্ত অঞ্চলে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৫-১৭ ৭:১৮:০০ এএম
জিটুপি পেমেন্ট পদ্ধতির উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত/ছবি: বাংলানিউজ

জিটুপি পেমেন্ট পদ্ধতির উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত/ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে মুহূর্তেই মাতৃত্বকালীন ভাতা পৌঁছে যাবে সেবাভোগীর কাছে। আর থাকবে না দীর্ঘ অপেক্ষা। সম্ভাবনা থাকবে না টাকা না পাওয়ার।

বৃহস্পতিবার (১৭ মে) দুপুরে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচির আওতায় ভাতাভোগীর কাছে সরকারি কোষাগার থেকে সরাসরি ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে ভাতার অর্থ পাঠাতে গভর্নমেন্ট টু পার্সন (জিটুপি) পেমেন্ট পদ্ধতির উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মাতৃত্বকালীন ভাতা ৭টি পাইলট উপজেলায় ভাতাভোগীদের কাছে ডিজিটাল পদ্ধতিতে (জিটুপি) পেমেন্ট করা হয়। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অর্থ সচিব মোহাম্মদ মুসলিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম।

ডিজিটাল পদ্ধতির মাধ্যমে সরকারি কোষাগার থেকে সুবিধাভোগীদের ভাতা তাদের ব্যাংক অথবা মোবাইল বা পোস্টার অ্যাকাউন্টে সরাসরি পাঠানো হবে। এতে ভাতাভোগীদের সময় যেমন বাঁচবে, তেমনি দুর্ভোগও কমবে।
 
নতুন এ পদ্ধতিতে সুবিধাভোগীদের সম্পর্কে জাতীয় পরিচয়পত্রসহ প্রয়োজনীয় তথ্য-উপাত্ত অর্থ বিভাগ ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের এমআইএস-এ সংরক্ষিত থাকবে। যার ভিত্তিতে তাদের ভাতা পাওয়ার যোগ্যতা যাচাই করে ভাতা পরিশোধ করা হবে। 
 
বৃস্পতিবার ভিডিও কনফারেন্স ও স্কাইপির মাধ্যমে ৭টি উপজেলার ভাতাভোগীর কাছে ভাতার টাকা তুলে দেওয়া হয়। এসময় নিজ নিজ উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), উপজেলা পর্যায়ের জনপ্রতিনিধিরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সেবাভোগীদের হাতে ভাতার টাকা তুলে দেন। 

এই সেবা উদ্বোধন করে অর্থমন্ত্রী তার প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করে বলেন, একসময় ব্যাংকের মাধ্যমে টাকা পাঠালে কয়েকদিন লাগতো উপকারভোগীর কাছে পৌঁছাতে। তখন টাকা খোয়া যাওয়ারও সম্ভাবনা থাকতো। আজ এখানে বসে এক টিপে মিনিটের মধ্যে চলে গেলো সেবাভোগীর কাছে। তথ্য প্রযুক্তিতে এটা একটি বিপ্লব। 

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, বাংলাদেশ যে ডিজিটাল হয়েছে সেটার একটি সুফল আজ মাতৃত্বকালীন ভাতাভোগীরা পাচ্ছেন। আমাদের টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রার আরেকটি ধাপ এই সেবা। এখন ৭টি উপজেলায় এই সেবা চালু করলেও পর্যায়ক্রমে সব উপজেলার মায়েদের সেবার আওতায় আনা হবে।
 
যে ৭টি উপজেলায় জিটুপি সেবার উদ্বোধন করা হলো- নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও, মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর, ঢাকার সাভার, গোপালগঞ্জের টুঙ্গীপাড়া, গাজীপুরের কালিগঞ্জ ও কালিয়াকৈর এবং কিশোরগঞ্জের ভৈরব। প্রতি মাসে ৫শ টাকা করে তিন মাসের টাকা একবারে পাবেন মায়েরা। এদিন ৮ হাজার ৮১১ জন মা এ ভাতা পান।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৭১০ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০১৮
এসএম/এএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db