[x]
[x]
ঢাকা, রবিবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৫, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
bangla news

শেয়ার বিক্রি করছেন বিদেশি বিনিয়োগকারীরাও

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-০৩-০১ ৬:০০:৩৭ এএম
ডিএসই

ডিএসই

ঢাকা: জানুয়ারি মাসের তুলনায় ফেব্রুয়ারি মাসে বিদেশি ও প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের লেনদেন কমেছে ২৬৬ কোটি ৯২ লাখ ৮ হাজার ৬৯৯ টাকা। দরপতনের এ মাসে তারা শেয়ার কেনার চেয়ে বিক্রি করছেন বেশি। দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বেশকিছু ইস্যুকে কেন্দ্র করে ফেব্রুয়ারি মাসে বেশিরভাগ দিন পুঁজিবাজারে দরপতন হয়েছে। দরপতনের ফলে দেশি বিনিয়োগকারীর পাশাপাশি বিদেশি বিনিয়োগকারীরাও শেয়ার বিক্রি করেছেন বেশি। অন্যদিকে কিছু বিদেশি শেয়ার না কিনে বাজার পর্যবেক্ষণ করেছেন। ফলে জানুয়ারি মাসের চেয়ে ডিএসইতে ফেব্রুয়ারি মাসে লেনদেনও কম হয়েছে। 

ডিএসইতে জানুয়ারি মাসে লেনদেন হয়েছিলো ১০ হাজার ৭২ কোটি ১৬ হাজার টাকা। আর ফেব্রুয়ারি মাসে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৭ হাজার ৬৭৯ কোটি ৬১ লাখ টাকা। প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা লেনদেন কম হয়েছে।

ডিএসইর তথ্য মতে, ফেব্রুয়ারি মাসে বিদেশি ও প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের শেয়ার কেনা-বেচা বাবদ লেনদেন হয়েছে ৮৮০ কোটি ৭০ লাখ ৮১ হাজার ৫৫৭ টাকা। অথচ জানুয়ারি মাসে ডিএসইতে বিদেশি ও প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের লেনদেন হয়েছিলো ১ হাজার ১৪৭ কোটি ৬২ লাখ ৯০ হাজার ২৫৬ টাকার। যা আগের মাসের চেয়ে ২৬৬ কোটি ৯২ লাখ ৮ হাজার ৬৯৯ টাকা কম। এর আগের মাস ডিসেম্বরে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ১২৪ কোটি ৪৮ লাখ ১১ হাজার ৮৫৮ টাকার।

ফেব্রুয়ারি মাসে ৮৮০ কোটি ৭০ লাখ ৮১ হাজার ৫৫৭ টাকার মধ্যে ৩৯২ কোটি ৯৯ লাখ ২ হাজার ৩৭২ টাকার শেয়ার কিনেছেন বিদেশিরা। তার বিপরীতে ৪৮৭ কোটি ৭১ লাখ ৭৯ হাজার ১৮৫ টাকার শেয়ার বিক্রি করেছেন। ফলে বিদেশিদের নিট বিনিয়োগ দাঁড়িয়েছে ৯৪ কোটি ৭২ লাখ ৭৬ হাজার ৮১২ টাকা।

অথচ জানুয়ারি মাসের একই সময়ে বিদেশি বিনিয়োগকারীরা ৬৬৭ কোটি ৪৩ লাখ ৫৯ হাজার ৭২১ টাকার শেয়ার কিনেছেন। আগের মাসের তুলনায় শেয়ার অর্ধেক কম কিনেছেন বিদেশিরা। তার আগের মাস ডিসেম্বরে বিদেশিরা ৫৯৩ কোটি ৫১ লাখ ৮৫ হাজার ৮৬৪ টাকার শেয়ার কিনেছিলেন।

এ বিষয়ে পুঁজিবাজার বিশ্লেষক অধ্যাপক আবু আহমেদ বাংলানিউজকে বলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের মুদ্রানীতি ও বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর ব্যাংক ঋণ-আমানতের অনুপাত এডি নিয়ে গুজবের পাশাপাশি রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে ফেব্রুয়ারি মাসের বেশিরভাগ দিন পুঁজিবাজারে দরপতন হয়েছে। এতে আস্থা ও তারল্য সংকটে পড়ে পুঁজিবাজার। আর আস্থার সংকটের কারণে দেশি বিনিয়োগকারীর পাশাপাশি বিদেশিরাও শেয়‍ার বিক্রি করেছে বেশি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৬ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০১৮
এমএফআই/এমজেএফ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অর্থনীতি-ব্যবসা বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa