ঢাকা, বুধবার, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪ জিলহজ ১৪৪১

কৃষি

ঢাকায় জাতীয় সবজি মেলা-২০১৭ উদ্বোধন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৭-০১-০৫ ০৮:৫৩:৩০ এএম
ঢাকায় জাতীয় সবজি মেলা-২০১৭ উদ্বোধন জাতীয় সবজি মেলা-২০১৭ এর উদ্বোধনী আনুষ্ঠানের ছবি/রানা

ঢাকা: ‘সুস্থ সবল স্বাস্থ্য চান, বেশি করে সবজি খান’ এ প্রতিপাদ্য সামনে রেখে ঢাকায় দ্বিতীয় বারের মতো শুরু হয়েছে জাতীয় সবজি মেলা-২০১৭। বৃহস্পতিবার (০৫ জানুয়ারি) রাজধানীর আ. কা. মু গিয়াস উদ্দীন মিলকী অডিটরিয়াম প্রাঙ্গণে কৃষি মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে তিন দিনব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী অ্যাডভোকট মোস্তাফিছুর রহমান।

সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ৭৭টি দোকান নিয়ে এ মেলা শুরু হয়েছে। এ সবজি মেলা চলবে ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত।

দোকানগুলোতে পাওয়া যাচ্ছে দেশি-বিদেশি বিভিন্ন রকমের সবজি। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর দোকানের সবজি শুধুমাত্র প্রদর্শনের জন্য হলেও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের দোকানগুলোতে চলছে কেনা-বেচা। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে মেল‍া।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে সবজি উৎপাদনে বিপ্লব ঘটে গেছে। আগে শুধু শীতকালে সবজি পাওয়া যেত, কিন্তু এখন আমাদের দেশে ১২ বারমাসই সবজি পাওয়া যায়।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ সব ক্ষেত্রে সমানভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। আমরা মানুষকে উন্নত জীবনের স্বপ্ন দেখিয়েছি। এ দেশে আগ্রযাত্রা এগিয়ে যাবে কারণ দেশের মানুষের মনে বিপ্লব ঘটেছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ কৃষিখাতে সফল একটি দেশ। আমরা যখন ৯৬ হাইব্রিড সবজি উৎপাদনের চিন্তা করি তখন অনেকে অনেক কথা বলেছিলো। কিন্তু আমি তাদের বলবো আপনাদের কথা যদি আমরা শুনতাম, তাহলে সবজি উৎপাদনে এতো বিপ্লব ঘটতো না।

তিনি বলেন, সরকার সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার ফলে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। দেশের সবজি এখন বিদেশেও রফতানি করছি। যা এক সময় আমরা চিন্তা করতে পারতাম না।

এ সময় সবজি ব্যবসার সঙ্গে জড়িতদের উল্লেখ করে তিনি বলেন, আপনার এগিয়ে যান, সরকার সাহায্য করবে। সরকার কোনো দিন ব্যবসা করবে না এবং করা উচিৎও না। কিন্তু আপনারা যদি ব্যবসার নামে অন্যায় করেন, তাহলে সরকার চুপ করে বসে থাকবে না।
 
কৃষি মন্ত্রাণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মঈনউদ্দীন আবদুল্লার সভাপতিত্বে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ক‍াউন্সিলের চেয়ারম্যান ড. আবুল কালাম আযাদ ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মো. হামিদুর রহমান।

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের উদ্যানতত্ত্ব বিভাগের প্রাক্তন পরিচালক ড. শাহাবুদ্দিন আহমদ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৫, ২০১৭
এমএ/ওএইচ/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa