bangla news

ডিএসই’র লেনদেন বেড়েছে প্রায় ৪২ শতাংশ

42 |
আপডেট: ২০১৪-০১-২৪ ১০:৩৮:৫২ পিএম

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সপ্তাহজুড়ে সূচক ও লেনদেনে বড় ধরনের অগ্রগতি লক্ষ্য করা গেছে। গত সপ্তাহে ডিএসই লেনদেন বেড়েছে ৪১ দশমিক ৮৭ শতাংশ।

ঢাকা: দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সপ্তাহজুড়ে সূচক ও লেনদেনে বড় ধরনের অগ্রগতি লক্ষ্য করা গেছে। গত সপ্তাহে ডিএসই লেনদেন বেড়েছে ৪১ দশমিক ৮৭ শতাংশ।
 
অন্যদিকে, গত সপ্তাহে ডিএসইর সাধারণ সূচক (ডিএসইএক্স) বেড়েছে ৪ দশমিক ০৬ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক বেড়েছে ৪ দশমিক ৪৮ পয়েন্ট।
 
এদিকে সিএসই’র সকল সূচক বেড়েছে। সিএসসিএক্স সূচক বেড়েছে ৩৪৭ পয়েন্ট, সিএসই-৩০ সূচক বেড়েছে ৫৯৬ পয়েন্ট এবং সিএএসপিআই সূচক বেড়েছে ৫৬৬ পয়েন্ট।  এছাড়া গত সপ্তাহে সিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৮০ কোটি ৮৪ লাখ ৪৮ হাজার ৮০৬ টাকা।
 
গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার ডিএসইর সাধারণ সূচক (ডিএসইএক্স) ছিল ৪ হাজার ৫১৯ দশমিক ৩৬ পয়েন্ট।

সপ্তাহ শেষে বৃহস্পতিবার সূচক বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়ায় ৪ হাজার ৭০২ দশমিক ৬৬ পয়েন্টে। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে সূচক (ডিএসইএক্স) বেড়েছে ১৮৩ দশমিক ৩০ পয়েন্ট বা ৪ দশমিক ০৬ শতাংশ।
 
এদিকে, গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার সিএসইর সিএসসিএক্স সূচক ছিল ৮ হাজার ৮৮৭ পয়েন্টে। সপ্তাহ শেষে বৃহস্পতিবার সূচক বৃদ্ধি পেয়ে দাঁড়ায় ৯ হাজার ২৩৪ পয়েন্টে। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসসিএক্স সূচক বেড়েছে ৩৪৭ পয়েন্ট বা ৩ দশমিক ৮৯ শতাংশ।
 
অন্যদিকে গত সপ্তাহের অধিকাংশ কার্যদিবসেই ডিএসই ও সিএসই’র সূচক বেড়েছে। এছাড়া বেড়েছে ডিএসই ও সিএসইতে লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিটের দাম।
 
গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট লেনদেন বেড়েছে ৪১ দশমিক ৮৭ শতাংশ। লেনদেন হয়েছে মোট তিন হাজার ৬৯৮ কোটি ৩৩ লাখ ৫০ হাজার ৭০১ টাকা। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল দুই হাজার ৬০৬ কোটি ৭৬ লাখ ৭ হাজার ২০৬ টাকা।
 
গত সপ্তাহের ৫ কার্যদিবসে ডিএসইর ৩০১টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ২১৭টির, কমেছে ৭৪টির ও অপরিবর্তিত ছিল ৮টির দাম। কোনো লেনদেন হয়নি ২টি প্রতিষ্ঠানের। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠাগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছিল ২১৬টির, কমেছে ৭২টির ও অপরিবর্তিত ছিল ১০টির দাম। কোনো লেনদেন হয়নি ২টি প্রতিষ্ঠানের।
 
ডিএসই ও সিএসই’র ওয়েবসাইট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
 
এদিকে মোট ৫ কার্যদিবসের ডিএসই’র দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে। গত সপ্তাহে দৈনিক গড় দাঁড়ায় ৭৩৯ কোটি ৬৬ লাখ ৭০ হাজার ১০৪ টাকা; যেখানে এর আগের সপ্তাহে গড় ছিল ৬৫১ কোটি ৬৯ লাখ ১ হাজার ৮০২ টাকা। অর্থাৎ গত সপ্তাহে এর আগের সপ্তাহের চেয়ে গড় লেনদেন বেড়েছে ৪১ দশমিক ৮৭ শতাংশ।
 
এছাড়া ডিএসইতে বেড়েছে শেয়ার লেনদেনের পরিমাণ। গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৮২ কোটি ৭৭ লাখ ৭৮ হাজার ৭৫৭টি শেয়ার হাতবদল হয়েছে। যেখানে গত সপ্তাহের আগের সপ্তাহে ছিল ৫৬ কোটি ৮৬ লাখ ৪১ হাজার ১৫৮টি। সুতরাং গত সপ্তাহে শেয়ার লেনদেন বেড়েছে ৪৫ দশমিক ৫৭ শতাংশ।
 
সাপ্তাহিক দাম বাড়ার ভিত্তিতে ডিএসইর শীর্ষ দশ কোম্পানি হলো- আইসিবি এএমসিএল ইসলামিক মি. ফান্ড (২৩ দশমিক ৬৬ শতাংশ দাম বেড়েছে), আইপিডিসি (২১ দশমিক ৫০ শতাংশ), আইএফআইএল ইসলামিক মি. ফান্ড-১ (২১ দশমিক ৩১ শতাংশ), প্রাইম ইসলামী লাইফ মি. ফান্ড (১৯ দশমিক ০১ শতাংশ), প্রগ্রেসিভ লাইফ ইন্সুরেন্স (১৮ দশমিক ৪৪ শতাংশ), মেঘনা লাইফ ইন্সুরেন্স (১৮ দশমিক ০৩ শতাংশ), ডাচ্-বাংলা ব্যাংক (১৭ দশমিক ৬৯ শতাংশ), নর্দান জেনারেল ইন্সুরেন্স (১৭ দশমিক ৪১ শতাংশ), আইসিবি এমপ্লায়ী প্রভিডেন্ট ফান্ড মি. ফান্ড-১ (১৬ দশমিক ৯৫ শতাংশ) এবং প্রাইম ব্যাংক ফাস্ট আইসিবি এএমসিএল মি. ফান্ড (১৬ দশমিক ০৭ শতাংশ)।
 
অন্যদিকে সপ্তাহ শেষে দাম কমার ভিত্তিতে ডিএসইর শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো- রূপালী লাইফ ইন্সুরেন্স (২৬ দশমিক ৮৬ শতাংশ দাম কমে), মেঘনা কনডেন্স মিল্ক (১৯ দশমিক ৩৮ শতাংশ), মেঘনা পেট (১৯ দশমিক ০০ শতাংশ), ইমাম বাটন (১৬ দশমিক ৯৬ শতাংশ), দুলামিয়া কটন (১১ দশমিক ৭৬ শতাংশ), সিয়ামপুর সুগার (১০ দশমিক ৪২ শতাংশ), জিল বাংলা সুগার (১০ দশমিক ১০ শতাংশ), স্টাইল ক্রাপ্ট (৯ দশমিক ৭৮ শতাংশ), বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেম (৯ দশমিক ৩৭ শতাংশ) এবং অ্যাপোলো ইস্পাত কমপ্লেক্স (৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ)।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৯৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০১৪

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2014-01-24 22:38:52