bangla news

বাংলাদেশে ৩ লাখ টন চাল রফতানি স্থগিত করেছে ভারত

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১০-১১-২৩ ৭:৩৮:২১ এএম

বাংলাদেশে ৩ লাখ টন চাল রফতানি স্থগিত করেছে ভারত। গত অক্টোবরে বাণিজ্যমন্ত্রী ফারুক খানের দিল্লি সফরের সময় এই চাল রফতানির ঘোষণা দেওয়া হয়।

নয়াদিল্লি : বাংলাদেশে ৩ লাখ টন চাল রফতানি স্থগিত করেছে ভারত। গত অক্টোবরে বাণিজ্যমন্ত্রী ফারুক খানের দিল্লি সফরের সময় এই চাল রফতানির ঘোষণা দেওয়া হয়।

দুই দেশের বাণিজ্য সম্পর্ক উন্নয়নে মাস খানেক আগে বাংলাদেশের বাণিজ্যমন্ত্রী মোহম্মদ ফারুক খান ভারত সফর করেন।

ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানায়, ওই চাল কিনতে বাংলাদেশ ছাড় চাওয়ায় তা রফতানি স্থগিত করা হয়েছে। বাংলাদেশ প্রতি টনে ভারতের কাছ থেকে ৫ ডলার ছাড় চেয়েছে।

ভারতের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, চাল কেনার চুক্তি পর এটা বাংলাদেশের নতুন আবদার বলে সরকার চাল রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে।

আন্তর্জাতিক বাজারের ওই মানের চালের দাম টনপ্রতি ৪৯১.৮০ ডলার হলেও বাংলাদেশ তা চেয়েছে ৪৮৬.৮০ ডলার দরে।

ফারুক খানের সফরের সময় ভারতের বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী আনন্দ শর্মা ঘোষণা করেন, ভারত তিন লাখ টন চাল ও দুই লাখ টন গম রফতানি করবে বাংলাদেশে।

বাংলাদেশে চাল ও গম রফতানির ক্ষেত্রে গত আগস্টের কূটনৈতিক অনুরোধের পর যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় তিনি শুধু তার পুনুরাবৃত্তি করেন।

তবে দিল্লির বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র বাংলানিউজকে জানায়, শিগরিই বাংলাদেশে এই ৩ লাখ টন চাল রফতানি করা হবে।

ভারত প্রতি বছর প্রায় ৫ লাখ টন খাদ্যশস্য বাংলাদেশে রফতানি করে। এ বছরও তা অব্যাহত আছে। গত মে ভারত আভ্যন্তরিণ সংকট কাটিয়ে ওঠার জন্য শস্য রফতানি বন্ধ করে দেয়। এ সময় বাংলাদেশে এক লাখ টন চাল রফতানি করে। এর আগে বাংলাদেশে ৪ লাখ টন গম রফতানির অনুমোদন দেয় ভারত।

বাংলাদেশ সময় : ১৮১২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০১০

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
db 2010-11-23 07:38:21