ঢাকা, বুধবার, ৫ আষাঢ় ১৪৩১, ১৯ জুন ২০২৪, ১১ জিলহজ ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

নেত্রকোনায় বাজুসের মতবিনিময় সভা 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭৪২ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২৪
নেত্রকোনায় বাজুসের মতবিনিময় সভা 

নেত্রকোনা: বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাজুস), নেত্রকোনা জেলা শাখার সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা করেছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা।

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) বিকেলে নেত্রকোনা পৌর শহরের নাগড়া সমুদ্র কনভেনশন হলে 
নেত্রকোনা জেলা কমিটি এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

বাজুস নেত্রকোনা জেলা কমিটির সভাপতি চঞ্চল সরকারের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাজুসের সাবেক সভাপতি ও বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক্ট মনিটরিংয়ের চেয়ারম্যান ডা. দিলীপ কুমার রায়।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বাজুস কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি গুলজার আহমেদ, বাজুসের কার্যনির্বাহী সদস্য ও বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক্ট মনিটরিংয়ের সদস্য পবিত্র চন্দ্র ঘোষ, বাজুসের উপদেষ্টা রুহুল আমিন রাসেল, বাজুস কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য মো. শামছুল হক ভূঁইয়া এবং বাজুস স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডিস্ট্রিক্ট মনিটরিংয়েল সদস্য চন্দন কুমার ঘোষ।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন নারায়ণ কর্মকার।

সভায় জেলা কমিটির নেতৃবৃন্দ, সদস্যসহ জুয়েলারি ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় স্থানীয় স্বর্ণকাররা তাদের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন।

মতবিনিময় সভায় কেন্দ্রীয়, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের নেতারা সংগঠনের প্রেসিডেন্ট সায়েম সোবহান আনভীরের প্রশংসা করেন। তারা বলেন, সংগঠনের প্রেসিডেন্ট সায়েম সোবহান আনভীরের নেতৃত্বে বাজুস সাফল্য পাচ্ছে। তার গতিশীল নেতৃত্বের কারণেই সংগঠন আজ শক্তিশালী হয়েছে।  

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে দিলীপ কুমার রায় বলেন, সারা দেশের জুয়েলারি ব্যবসায়ীদের এক ছাতার নিচে আনতে চায় বাজুস। আর আমাদের বাজুস প্রেসিডেন্ট সায়েম সোবহান আনভীর চান, জুয়েলারি ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে।

তিনি বলেন, নিজেদের স্বার্থে সবাইকে কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মেনে ব্যবসা করতে হবে। বাজুস চাচ্ছে, আমরা কাউকে ঠকাব না, নিজেরাও ঠকব না। এমনকি সরকারকেও ঠকাব না।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৪ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২৪
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।