ঢাকা, শনিবার, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৩ শাবান ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

‘সম্পদ ব্যবহারে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৭, ২০২৩
‘সম্পদ ব্যবহারে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে’

ঢাকা: দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলো নিয়ে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ঢাকায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘আঞ্চলিক জলবায়ু সম্মেলন ২০২৩’।  

শুক্রবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু সম্মেলন কেন্দ্রে এ সম্মেলন শুরু হবে।

চলবে ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। সম্মেলনে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবে।

এ আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিশ্বব্যাপী জলবায়ু সংকট, বৈশ্বিক পরিবেশ দূষণ, জল ব্যবস্থাপনা, জলবায়ু সংক্রান্ত কার্যক্রমে অর্থায়ন, বিশুদ্ধ বায়ু, শক্তি নিরাপত্তা এবং দেশগুলোর জন্য প্রাকৃতিক সম্পদের টেকসই ব্যবহার নিয়ে আলোচনার সুযোগ সৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর পরিবেশ ও জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত ও ক্লাইমেট পার্লামেন্ট বাংলাদেশের প্রধান পৃষ্ঠপোষক সাবের হোসেন চৌধুরী এমপি।

বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানী হোটেল শেরাটনের হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি সম্মেলনের বিস্তারিত তুলে ধরেন। এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন, ক্লাইমেট পার্লামেন্ট বাংলাদেশের চেয়ারপারসন তানভির শাকিল জয় এমপি, আহ্বায়ক নাহিম রাজ্জাক এমপি এবং ইউএনডিপি বাংলাদেশের ডেপুটি  রেসিডেন্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ আনোয়ারুল হক।

সংবাদ সম্মেলনে সাবের হোসেন চৌধুরী বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর প্রাকৃতিক সম্পদের টেকসই ব্যবহারে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। এটি করতে পারলে জলবায়ুর অভিঘাত মোকাবিলায় টেকসই উন্নয়ন অভীষ্টের যে প্রতিশ্রুতি আছে, সেটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে।

তানভীর শাকিল জয় এমপি বলেছেন, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় সম্ভাব্য সমাধান আনতে দক্ষিণ এশিয়ার সংসদ সদস্যদের এক ছাতার নিচে এনে এ সম্মেলনের মাধ্যমে একটি ইতিবাচক পথনকশা তৈরি করা সম্ভব হবে।

নাহিম রাজ্জাক বলেন, শুক্রবারের সম্মেলনের মধ্য দিয়ে জলবায়ু পরিবর্তনজনিত অভিঘাতের বিষয়টি মাথায় একটি অর্থবহ শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। যেখানে স্ব স্ব সমস্যা ও সম্মিলিত সমাধানের সুপারিশ উঠে আসবে।

আনোয়ারুল হক বলেন, বিশ্বব্যাপী মানুষ একটি কঠিন জীবনযাপন করছে এবং এ প্রতিবন্ধকতার মূল কারণ হলো জলবায়ু পরিবর্তনের অভিঘাত। এজন্য এ সম্মেলনের মধ্যে দিয়ে একটি ভালো সুপারিশ আসার সুযোগ তৈরি হবে।

তিন দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, ভুটান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপের সংসদ সদস্য, বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, শীর্ষ নীতিনির্ধারক, কর্পোরেট সেক্টর, উন্নয়নে সহাযোগী, দেশি-বিদেশি সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকবেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৮, ২০২৩
জেডএ/জেএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।