ঢাকা, শনিবার, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ০২ মার্চ ২০২৪, ২০ শাবান ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

বিজিএমইএ-সওটেক্স টেক্সটাইল সোর্সিং মিট শুরু ৯ ফেব্রুয়ারি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩
বিজিএমইএ-সওটেক্স টেক্সটাইল সোর্সিং মিট শুরু ৯ ফেব্রুয়ারি

ঢাকা: বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ) ২০৩০ সালের মধ্যে পোশাক রপ্তানি ১০০ বিলিয়ন ডলারে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। এ জন্য বাংলাদেশের পোশাক শিল্পখাতে নিজস্ব ব্যাকওয়ার্ড লিঙ্কেজ তৈরি থেকে উৎপাদিত নির্ভরযোগ্য এবং মানসম্পন্ন কাঁচামালের পাশাপাশি চীন ও ভারত থেকে সহজলভ্য উপকরণ প্রয়োজন মনে করছে তারা।

এই প্রেক্ষিতে, বিজিএমইএ এবং সওটেক্স, কনফেডারেশন অব ইন্ডিয়ান টেক্সটাইল ইন্ডাস্ট্রিজকে (সিআইটিআই) সঙ্গে নিয়ে ভারতে ৯ থেকে ১২ ফেব্রুয়ারি দুটি টেক্সটাইল সোর্সিং মিট ২৩ এবং রোড শো করার পরিকল্পনা করেছে। সোমবার (৬ ফেব্রুয়ারি) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানিয়েছে বিজিএমইএ।

এতে বলা হয়েছে, ম্যান-মেইড ফাইবার-ভিত্তিক পোশাকের চাহিদা দিনদিন বাড়ছে এবং ভারত ম্যান-মেইড ফাইবারভিত্তিক ফেব্রিক্স, বিশেষ করে বিভিন্ন ধরনের ফ্যাশন ফেব্রিক্স উৎপাদনে বিশেষভাবে পারঙ্গম ও নির্ভরযোগ্য উৎস। ভারতীয় টেক্সটাইল সাপ্লাই চেন অত্যন্ত বিস্তৃত এবং একই সঙ্গে খণ্ডিত। তাই বিজিএমইএ ফ্যাশন এবং টেক্সটাইল সামগ্রী আমদানির জন্য ভারতের সঠিক সরবরাহকারীদের সঙ্গে দ্রুত সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে সওটেক্স-টেক এগ্রিগেটর বিটুবি সোর্সিং প্লাটফর্মের সঙ্গে কাজ করছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, বিজিএমইএ অতিরিক্ত স্থল বন্দরগুলো খুলে দিতে, সেই সঙ্গে পেট্রাপোল-বেনাপোল সীমান্তে যানজট কমাতে এবং ভারত থেকে বাংলাদেশে পোশাক শিল্পের কাঁচামাল যেন নির্বিঘ্নে রেলের মাধ্যমে আসতে পারে সে জন্য বাংলাদেশ ও ভারতের সরকারি সংস্থাগুলোর সঙ্গে কাজ করছে।

ভারতের মতো একটি নির্ভরযোগ্য উৎস থেকে দ্রুততম সময়ের মধ্যে মানসম্পন্ন কাঁচামাল আমদানি, আমাদের ক্রেতাদের চাহিদা পূরণের পাশাপাশি বাংলাদেশকে বৈচিত্র্যময় বাজারে শেয়ার বাড়াতে সহায়তা করবে।

সভাপতি ফারুক হাসানের নেতৃত্বে বিজিএমইএ সহ-সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিমসহ বাংলাদেশ পোশাক শিল্পের প্রতিনিধি দলটি ইভেন্টে যোগ দেবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, বিজিএমইএ প্রতিনিধিরা ভারতের শীর্ষ টেক্সটাইল প্রস্তুতকারকদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ স্থাপনের উদ্দেশ্যে দিল্লি, আহমেদাবাদ ও সুরাট শহরে পরিকল্পিত টেক্সটাইল সোর্সিং রোডশো তে যোগ দিতে চার দিনের সফরে ভারতে যাচ্ছেন।

সওটেক্স আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে শুরু হওয়া এই টেক্সটাইল রোডশোর কো-হোস্টিং করছে এবং সিআইটিআই, ডেনিম ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যাসোসিয়েশন, এসআরটিইপিসি এবং টেক্সটাইল মন্ত্রণালয়, জিওআইসহ কৌশলগত স্টেকহোল্ডারদের এই ইভেন্টে নেটওয়ার্কিংয়ের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছে।

প্রথম বৈঠকটি ৯ ফেব্রুয়ারি দিল্লিতে অনুষ্ঠিত হবে এবং তারপর ১০ এবং ১১ ফেব্রুয়ারি আহমেদাবাদ এবং সুরাটে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। এসব বৈঠকে বাংলাদেশ ২০৩০ সাল নাগাদ ১০০ বিলিয়ন পোশাক রপ্তানির যে লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে, তা পূরণে ভারত থেকে উচ্চ মানের ফেব্রিক্স এবং উপকরণ সরবরাহ করার ক্ষেত্রে কৌশলগত অংশীদারিত্ব গড়ে তোলার দিকে একটি বড় পদক্ষেপ হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০২৩
এমকে/এমএমজেড

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।