ঢাকা, রবিবার, ২২ মাঘ ১৪২৯, ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৩ রজব ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

বাংলাদেশে প্রথম পেইন্ট অ্যান্ড কোটিং প্রদর্শনী হচ্ছে আইসিসিবিতে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০২৩
বাংলাদেশে প্রথম পেইন্ট অ্যান্ড কোটিং প্রদর্শনী হচ্ছে আইসিসিবিতে

ঢাকা: পেইন্টিং এবং কোটিং সরঞ্জাম, এই সংক্রান্ত প্রযুক্তি সম্পর্কিত বাংলাদেশের প্রথম প্রদর্শনী ‘এক্সপো পেইন্ট অ্যান্ড কোটিংস’ শুরু হয়েছে। সোমবার (২৩ জানুয়ারি) রাজধানীর বসুন্ধরা আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারের গুলনকশা হলে শুরু হয়েছে ৩ দিনব্যাপী এই প্রদর্শনী।

প্রদর্শনী প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখা গেছে, ক্রেতা-দর্শনার্থীদের কেউ কেউ খোঁজ নিচ্ছেন নিজের বাড়ির জন্য ভাল মানের পেইন্টের। কেউবা এসেছেন কোটিং টুলস (পলেস্তরা তৈরির সরঞ্জাম) দেখতে।

প্রদর্শনীতে অধিকাংশ স্টলই ভারতীয়। তাদের আয়োজনেই এই প্রদর্শনী হচ্ছে। প্রদর্শনীতে ৮টি বাংলাদেশি, ৪টি মালয়েশিয়ান, সুইজারল্যান্ড এবং ভারতীয় স্টল মিলিয়ে মোট ৫৬টি স্টল রয়েছে।

ভারতীয় প্রতিষ্ঠান চারমিনার পেইন্ট ব্রাশ অ্যান্ড রোলার ব্রাশের বিক্র‍য় ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ ইলিয়াস বাংলানিউজকে বলেন, ১৯৭০ সালে আমাদের এই কোম্পানি প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে ২০টির বেশি প্রতিষ্ঠান আছে আমাদের। আমরা ভারতে শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠান। এখানে আমরা খুব ভাল সাড়া পাচ্ছি। এবারই প্রথম আয়োজন এখানে। যেহেতু আয়োজন একটু ছোট পরিসরে হচ্ছে এবারে আমরা শুধু একটি স্টল দিয়েছি।

মেলায় কোটিং টুলস দেখছিলেন আবদুল আহাদ। বাংলানিউজকে তিনি বলেন, নতুন বাড়ি করলাম, তাই রঙের কাজ বাকি। ভাবলাম রঙ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে একটু খোঁজ নিই। কাদের রঙটা ভাল, কেন ভাল এটা জানার জন্যই মূলত এসেছি। সম্ভব হলে পেইন্টিংয়ের কিছু টুল কিনে নিয়ে যাব।

প্রদর্শনী নিয়ে জানতে চাইলে আয়োজক সংস্থার অন্যতম প্রতিনিধি মনীষ চতুর্বেদী বাংলানিউজকে বলেন, বাংলাদেশে প্রথম বারের মতো এই প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হচ্ছে৷ ভারতে নিয়মিতই এই প্রদর্শনী হয়। এখন থেকে বছরের শেষ দিকে নিয়মিত এই আয়োজন করা হবে।

তিনি বলেন, প্রদর্শনী এবারই প্রথম, তাই আমাদের এবারের আয়োজনও ছোট। এবার বাংলাদেশি স্টল একটু কম হলেও আশা করছি আগামীতে আরও বেশি হবে। এখানে যারা আছেন, অধিকাংশই মেশিন সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক, যন্ত্রপাতি প্রস্তুতকারক, রঙের কাঁচামাল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত প্রদর্শনী দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। আগামী ২৫ জানুয়ারি এই প্রদর্শনী শেষ হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০২৩
এমকে/এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa