ঢাকা, বুধবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৯ রজব ১৪৪৪

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

ত্রিপুরায় ভোটের প্রচারে অভিষেক, কলকাতায় স্ত্রীকে জেরা সিবিআইয়ের

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৩ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০২২
ত্রিপুরায় ভোটের প্রচারে অভিষেক, কলকাতায় স্ত্রীকে জেরা সিবিআইয়ের

কলকাতা: ভারতের ত্রিপুরায় বিধানসভা উপনির্বাচনে প্রচারে যখন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, ঠিক তখন তার স্ত্রী রুজিরা বন্দ্যোপাধ্য়ায়কে সাত ঘণ্টার বেশি সময় ধরে জেরা করল সিবিআই।  

মঙ্গলবার (১৪ জুন) অভিষেকের স্ত্রীকে দুই ধাপে জেরা করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

দক্ষিণ কলকাতায় তাদের বাসভবন শান্তিনিকেতন এই জেরা চলে।

জানা গেছে, প্রথম ধাপে ছিল প্রশ্নের তালিকা, পরের ধাপে নথি দেখিয়ে রুজিরাকে দীর্ঘ সময় ধরে জিজ্ঞাসাবাদ চালায় সিবিআই।

প্রসঙ্গত, কয়লাপাচার কাণ্ডে প্রায় ১৪ মাস আগে শান্তিনিকেতনে গিয়ে রুজিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এক দফা জিজ্ঞাসাবাদ করেছিলেন সিবিআই গোয়েন্দারা। তারপর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একাধিকবার দিল্লিতে সংস্থার দফতরে ডেকে পাঠানো হয়। কিন্তু যাননি রুজিরা। ফলে তার নামে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছিল। পরে আদালত নির্দেশ দেন রুজিরাকে কলকাতাতেই জিজ্ঞাসাবাদ করতে হবে। সেই নির্দেশ মেনেই এদিন জিজ্ঞাসাবাদ চালায় সিবিআই।

জেরা শেষে এ বিষয় রুজিরা মুখ না খুললেও উপনির্বাচনের প্রচারে গিয়ে ত্রিপুরায় ঝড় তুললেন অভিষেক। তিনি অর্থের বিনিময়ে ভোট কেনার চেষ্টার অভিযোগ তুলেছেন ত্রিপুরার শাসকদল বিজেপির বিরুদ্ধে। এরই পাশাপাশি অভিষেক নিশানা করেছেন কেন্দ্রীয় এজেন্সিগুলোকে। তিনি ত্রিপুরায় আসবেন বলেই সিবিআই তার স্ত্রীকে গতকাল (১৩ জুন) নোটিশ পাঠিয়েছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন এই তৃণমূল নেতা।

উল্লেখ্য, পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম বড় দুর্নীতি কয়লা পাচারকাণ্ড। তাতে অন্যতম অভিযুক্ত অনুপ মাঝির অর্থ বিদেশি ব্যাঙ্কে কীভাবে গেল? এবং সেই অ্যাকাউন্টের সঙ্গে কীভাবে রুজিরার সংযোগ হল, তা নিয়েই মূলত মঙ্গলবার সিবিআই রুজিরাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে বলে জানা গিয়েছে। এই কাণ্ডে ইতোমধ্যে বেশ কয়েকবার দিল্লিতে গিয়ে তদন্তকারী সংস্থার সামনে দীর্ঘ জিজ্ঞাসাবাদের সম্মুখীন হয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

আগামী ২৩ জুন ত্রিপুরার ৪ কেন্দ্রে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। ৪ কেন্দ্রেই প্রার্থী দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। এদিন আগরতলা ও টাউন বড়দোয়ালি কেন্দ্রের উপনির্বাচনে দলের দুই প্রার্থীর সমর্থনে প্রচারে গিয়েছিলেন অভিষেক। ত্রিপুরার চারটি বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনে ২২১টি বুথকেই স্পর্শকাতর মনে করে সেখানে কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোটের দাবি জানিয়েছে তৃণমূল।  

অভিষেকের দাবি, ত্রিপুরার সবকটি বুথই স্পর্শকাতর। এজন্য কেন্দ্রীয় বাহিনী দিয়ে ভোট করার কথা বলেছেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩০ ঘণ্টা, জুন ১৪, ২০২২
ভিএস/এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa