ঢাকা, সোমবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

প্রকাশ্যে থুতু ফেলায় ৮৩৭ জনকে জরিমানা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৭, ২০২১
প্রকাশ্যে থুতু ফেলায় ৮৩৭ জনকে জরিমানা

কলকাতা: রাস্তায় প্রকাশে থুতু ফেলায় ৮৩৭ জনকে জরিমানা করেছে কলকাতার পুলিশ প্রশাসন।  

বুধবার (২৭ অক্টোবর) রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করা হয়।

এ সময় করোনাবিধি লঙ্ঘন করায় অন্তত ৯২৯ জনের নামে মামলা দিয়েছে পুলিশ।  

দুর্গাপূজা কাটতেই ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বাড়ছে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ। পূজার ভিড়ের কারণে সেখানে ২৫ শতাংশ করোনার প্রভাব বেড়েছে। তাই শহরে বিভিন্ন বাজার এবং গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় মাস্ক ব্যবহার নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে কলকাতা করপোরেশন ও পুলিশ।  

‘নো মাস্ক, নো অ্যান্ট্রি’ এমনই নির্দেশে কলকাতার নিউ মার্কেটসহ রাজ্যর সমস্ত বাজারে কড়াকড়ি শুরু করেছে প্রশাসন।

এমনকি ফুটপাতের হকার থেকে দোকানের বিক্রেতাদের মাস্ক না পরলে কড়া পদক্ষেপ নেবে পুলিশ। একই সঙ্গে ক্রেতাদেরও মাস্ক পরতে বাধ্য করবেন দোকানের বিক্রেতা থেকে হকাররা।  

শহরের বাজারগুলোতে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করতে মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) পুলিশের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেছিল কলকাতা করপোরেশন। বুধবার থেকে তা কার্য়কর করা হয়েছে।

এদিন থেকে মুখে মাস্ক না থাকলেই রাস্তা থেকে তুলে দেওয়া হবে হকারদের। একই ব্যবস্থা নেওয়া হবে ক্রেতাদের ক্ষেত্রেও। বাজারে তাদের ঢুকতে দেওয়া হবে না। কলকাতা পুলিশকে এমন ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসনের কর্তৃপক্ষ।  

বিষয়গুলো মাথায় রেখে বুধবার দিনভর শহরের বিভিন্ন বাজার এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। করোনাবিধি লঙ্ঘনের দায়ে বুধবার বিকেল ৫টা পর্যন্ত মোট ৯২৯ জনের বিরুদ্ধে মহামারি আইনে মামলা করেছে কলকাতা পুলিশ।
 
এ বিষয়ে পৌরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম বলেন, পুলিশকে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেকের কাছে অনুরোধ করছি, পথে বের হলে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করুন। এ বিষয়ে বাজারে মাইকিং করে প্রচারে জোর দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। চলবে পুলিশি অভিযান।

এদিকে, বুধবার সকাল থেকেই শহরের বাজার এলাকাগুলোতে কড়া অভিযানে নামেন বিভিন্ন থানার পুলিশ কর্তারা। উত্তর থেকে দক্ষিণ কলকাতা সর্বত্রই চলে এই অভিযান। সকালে নিউমার্কেটসহ একাধিক বাজার এলাকায় টহল দেন পুলিশের শীর্ষকর্তাসহ অন্য কর্মীরা। কোনো ব্যক্তিকে মাস্কহীন অবস্থায় দেখলেই মৌখিকভাবে সাবধান করা হয়। সঙ্গে মাস্ক না থাকলে তাদের বিনামূল্যে মাস্ক পরিয়ে দেন পুলিশকর্মীরা।

এরপরও দেখা গেছে, কিছুটা দূরে গিয়ে অনেকে মাস্ক খুলে বা কানে ঝুলিয়ে রাখছেন। সেইসব নাগরিকদের বেপোরায়া মনোভাবের কারণে মামলা করেছে পুলিশ। কিছু ক্ষেত্রে একই মনোভাব বিক্রেতাদেরও মধ্যে লক্ষ্য করেছে পুলিশ। এইসব উদাসীন ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

প্রকাশ্যে মাস্কহীন অবস্থায় ঘোরাফেরা পাশাপাশি ৮৩৭ জনকে রাস্তায় থুতু ফেলার অভিযোগে আইনানুগ ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিশ প্রশাসন।  

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে রাজ্য সরকারের আইন অনুযায়ী, শহরে রাজপথে প্রকাশ্যে থুতু ফেলা যাবে না। তা সত্ত্বেও এতদিন অনেক ক্ষেত্রে না দেখার ভান করে থাকতেন পুলিশ। তবে করোনার প্রভাব বাড়তেই তৎপর হয়েছে কতৃপক্ষ।  

বাংলাদেশ সময়: ২১০৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৭, ২০২১
ভিএস/জেএইচটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa