ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ কার্তিক ১৪২৮, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

পশ্চিমবঙ্গে ভোট-দোলের আগে ভারতে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৫৩৪৭৬

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৫ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২১
পশ্চিমবঙ্গে ভোট-দোলের আগে ভারতে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৫৩৪৭৬ ছবি: সংগৃহীত

কলকাতা: করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ ভারতের সব রাজ্যে আছড়ে পড়ছে বলে মত বিশেজ্ঞদের। এই অবস্থায় পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক সভা ও মিছিলে করোনাবিধির মানার চেষ্টা চোখে পড়ছে না।

 

মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা জানান, এ বিষয়ে রাজনৈতিক দলগুলোকে সচেতন হতে হবে। স্বাস্থ্য নিয়ে সচেতন থাকতে হবে ভোটারদের।

এদিকে ভোটমুখী পশ্চিমবঙ্গেও বাড়ছে করোনা শানাক্তের সংখ্যা। বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের হিসাব অনুযায়ী, গত একদিনে মৃত্যু হয়েছে ২ জনের। শনাক্ত ৪৬২ জন। ভোটের মিটিং, মিছিলে রাজ্যজুড়ে যে পরিমাণে ভিড় হচ্ছে তাতে ভোটের পর সংক্রমণ আরও বাড়বে বলবে মত চিকিৎসকদের।

একই মত নির্বাচন কমিশনেরও। কমিশন সূত্রে জানানো হয়েছে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় নতুন করোনাবিধি ও নির্দেশিকা জারির সম্ভবনা রয়েছে। সম্ভবত, পাঁচ রাজ্যের ভোট বিহার মডেলেই হতে পারে। কারণ কারোনাকালের মধ্য দিয়ে সম্প্রতি বিহারে বিধানসভা নির্বাচন হয়েছে।

অপরদিকে পাঁচ মাস পর এই প্রথম ভারতে ৫৩ হাজারের গণ্ডি পার হলো করোনা শনাক্তের সংখ্যা। শুধুমাত্র মহারাষ্ট্রেই গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ৩১ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে। পাশাপাশি চিন্তা বাড়াচ্ছে কেরালা, তামিলনাড়ু, পুদুচেরি, মধ্যপ্রদেশ, পাঞ্জাব, গুজরাটের মতো রাজ্যগুলো।

বৃহস্পতিবার প্রকাশিত কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছে ৫৩ হাজার ৪৭৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ২৫১ জনের। গত একদিনে করোনামুক্ত হয়েছেন মাত্র ২৬ হাজার ৪৯০ জন।

ভোটের মধ্যেই আবার ভারতে পর পর উৎসব আছে। তাই দিল্লি সরকারের অনুসরণে দেশটির সব রাজ্যেই দোল, হোলি, শবে বরাত, বিহু, ইস্টার ও ইদ উপলক্ষে প্রকাশ্যে জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা জারি করার সুপারিশ জানিয়ে প্রতিটি রাজ্যের প্রশাসনকে চিঠি দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। এই পরিস্থিতিতে অতীতের অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নিয়ে উৎসবের কারণে যাতে আর সংক্রমণ না বাড়ে তা নিশ্চিত করতেই এ নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

দিল্লির কেজরীওয়াল সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এ বছরে প্রকাশ্যে হোলি খেলা ও শবে বরাতে রাস্তায় নামতে দেওয়া যাবে না। একই নির্দেশিকা জারি করলো ভারত সরকার। তবে বিশেষজ্ঞদের মত, উৎসব ঠেকানো গেলেও পাঁচ রাজ্যে ভোটের পরে সংক্রমণ যে আরও বাড়বে সে বিষয়ে অনেকটাই নিশ্চিত।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৫ ঘণ্টা, মার্চ ২৫, ২০২১
ভিএস/এইচএডি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa