ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯, ১১ আগস্ট ২০২২, ১২ মহররম ১৪৪৪

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

পশ্চিমবঙ্গে করোনা হাসপাতালের ৮৩ শতাংশ শয্যাই ফাঁকা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০২০
পশ্চিমবঙ্গে করোনা হাসপাতালের ৮৩ শতাংশ শয্যাই ফাঁকা পশ্চিমবঙ্গে করোনা হাসপাতালের ৮৩ শতাংশ শয্যাই ফাঁকা

কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গে মাসকয়েক আগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য যেখানে শয্যা পাওয়াই বড় বিষয় ছিল, সেখানে রাজ্যের ৮৩ শতাংশ সরকারি করোনা শয্যাই এখন খালি। পাশাপাশি বর্তমানে রাজ্যের বেসরকারি হাসপাতালের ৫৫ শতাংশ করোনা শয্যা খালি বলে স্বাস্থ্যভবন সূত্রে জানা গেছে।

স্বাস্থ্যদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) ৪০ হাজার ১৫৬টি করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত রাজ্যে মোট ৬৭ লাখ ৭৫ হাজার ৮৯৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। রাজ্যে মোট ১০২টি করোনা হাসপাতাল রয়েছে। এর মধ্যে সরকারি কোভিড হাসপাতালের সংখ্যা ৪৫, বেসরকারি হাসপাতালের সংখ্যা ৫৭।

মোট শয্যা সংখ্যা ১৩ হাজার ৫৮৮। সরকারি তথ্য অনুযায়ী, এর মধ্যে ১১ হাজার ৩০২টি শয্যাই খালি। শতকরা হিসেবে ৮৩ শতাংশের বেশি। কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ এবং দক্ষিণ কলকাতার সরকারি এমআর বাঙ্গুরের মতো বড় করোনা হাসপাতালের প্রায় অর্ধেক শয্যায় রোগী নেই। মেডিক্যাল কলেজে ৬৬০টি শয্যার মধ্যে রোগীশূন্য ৩৩৭টি। অন্যদিকে, এমআর বাঙ্গুরে খালি ৬৭০টি শয্যার মধ্যে ৩১৫টি। রাজ্যের অন্য করোনা হাসপাতালগুলোর প্রায় এ হাল।

করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের টাস্কফোর্সের সদস্য ড. সৌমিত্র ঘোষ বলেন, ‘করোনার কবল থেকে ক্রমশ সুস্থ হচ্ছে পশ্চিমবাংলা। বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরেই বাড়ছে সুস্থতার হার। খুবই ইতিবাচক এ পরিসংখ্যান। কিন্তু এসব দেখে আবার কেউ যেন অতি উৎসাহী হয়ে না পড়েন। সংক্রমণ এড়াতে মাস্ক পরা, শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা ইত্যাদি নিয়ম বজায় রাখতেই হবে। ’

এর জেরে গড়ে দৈনিক ৩ হাজার করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যা কমেছে। গতদিনে রাজ্যে শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৬৫৩ জন। এ নিয়ে বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) সকাল পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫ লাখ ৩৯ হাজার ৯৯৬।

অন্যদিকে, রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের সর্বশেষ বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ২ হাজার ২৭০ জন। সবমিলিয়ে সুস্থ হয়েছেন মোট ৫ লাখ ১৪ হাজার ৩০৯ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৯৫ দশমিক ২৪ শতাংশ।

তবে গতদিনে রাজ্যে আরও ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে রাজ্যে করোনায় মৃত বেড়ে হয়েছে ৯ হাজার ৪৩৯ জন।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০২০
ভিএস/এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa