ঢাকা, শুক্রবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯, ১২ আগস্ট ২০২২, ১৩ মহররম ১৪৪৪

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

প্রকাশ পেলো ‘এপারের চোখে মুজিব’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০২০
প্রকাশ পেলো ‘এপারের চোখে মুজিব’ প্রকাশ পেলো ‘এপারের চোখে মুজিব’

কলকাতা: জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে কলকাতার কণ্ঠস্বর প্রকাশনার সহযোগিতায় প্রকাশ পেলো ‘এপারের চোখে মুজিব’। বইয়ের সহ-প্রকাশক ঢাকার সময় প্রকাশন।

বইটিতে ভারতের ৩৬ জন লেখক এবং ৫ জন প্রবাসী বাংলাদেশি বুদ্ধিজীবীর নিবন্ধ রয়েছে।

সোমবার (১৪ ডিসেম্বর) কলকাতাস্থিত বাংলাদেশ উপদূতাবাসে আনুষ্ঠানিকভাবে বইটির মোড়ক উন্মোচন করেন প্রেস শাখার প্রথম সচিব মেফাকখারুল ইকবাল।

ইকবাল বলেন, ‘২৫ মার্চ অপারেশন সার্চলাইট চালু হওয়ার পরে তখনকার আওয়ামী লীগের নেতারা নিরাপদ মনে করে পশ্চিমবঙ্গে চলে আসেন। ১০ এপ্রিল মুজিবনগর সরকার গঠনের পর এখান থেকে মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনা শুরু হয় এবং ১৭ এপ্রিল মুজিবনগরে সরকার শপথ নেয়। পশ্চিমবঙ্গ থেকে মুক্তিযুদ্ধ পরিচালনার কারণ, পশ্চিমবঙ্গবাসীর সহযোগিতা। ফলে পশ্চিমবঙ্গের বুদ্ধিজীবী, কবি, সাহিত্যিক, লেখকদের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। সেই প্রেক্ষাপটে পশ্চিমবঙ্গের বুদ্ধিজীবীদের চোখে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে ‘এ পারের চোখে মুজিব’ বইটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ’

এক লাখেরও বেশি শব্দ নিয়ে তৈরি এ সংকলনগ্রন্থে বহু অধ্যাপক, গবেষক, রাজনীতিবিদসহ সমাজের বিশিষ্টজনেরা বঙ্গবন্ধুর জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে যেমন বিশ্লেষণ করেছেন, তেমনই বাংলাদেশ গঠনের পর বিজ্ঞানচিন্তা, খেলাধুলা থেকে শুরু করে সিনেমা, নাটকের মতো বিনোদন কীভাবে আবর্তিত হচ্ছিল, তার প্রামাণ্য দলিল তুলে ধরা হয়েছে। এর পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুর কলকাতার জীবন থেকে তার ফুটবলপ্রেম বা অন্যকিছুই গবেষকদের দৃষ্টি এড়ায়নি।

বইটিতে ভারতীয় লেখকদের মধ্যে যেমন মোদী সরকারের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং তথা বর্তমান সংসদ সদস্য এমজে আকবর, সাবেক কংগ্রেস সংসদ সদস্য দেবপ্রসাদ রায়, সিপিএমের সাবেক সাংসদ মইনুল হাসান, পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী তথা নাট্যকার ব্রাত্য বসু, বিখ্যাত গায়ক নচিকেতা মুজিবের বর্ণময় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বে আলোকপাত করেছেন তেমনই জয়ন্ত ঘোষাল, গৌতম ভট্টাচার্য, মহম্মদ সাদউদ্দিন, সৈয়দ তানভীর নাসরিন, রুপক সাহার মতো বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী, সাংবাদিকরাও কলম ধরেছেন।

এর পাশাপাশি প্যারিস প্রবাসী বিশিষ্ট মূকাভিনয় শিল্পী পার্থপ্রতিম মজুমদার, মস্কোয় বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত সাইফুল হক, মুক্তিযোদ্ধা তথা অস্ট্রেলিয়ান প্রবাসী কামরুল আহসান খান, ভয়েস অব আমেরিকার সাংবাদিক ও লেখক আনিস আহমেদ, শহিদ বুদ্ধিজীবীর পুত্র নিউইয়র্ক প্রবাসী তৌহিদ রেজানুর বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন দিকসহ তার বৈচিত্র্যময় জীবন, কাজ এবং বিদেশনীতিকে ব্যাখ্যা করেছেন।

বইটির সম্পাদনা করেছেন সুমন ভট্টাচার্য্য। তিনি জানান, তাদের এ শ্রদ্ধার্ঘ প্রচেষ্টায় মূল কারণ ভারতের রাজনীতিক, কূটনীতিক, সাংবাদিক, নাট্যকার, কবি, অধ্যাপকরা স্বাধীন বাংলাদেশ গড়ে ওঠায় কীভাবে মুজিবের অবদানকে দেখেন এবং তার মৃত্যুর ৪৫ বছর বাদে বঙ্গবন্ধুর মূল্যায়ন করেন, তাই তুলে ধরা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৪, ২০২০
ভিএস/এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa