ঢাকা, সোমবার, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ২৬ অক্টোবর ২০২০, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

পূজার শপিং করতে কলকাতায় ভিড়, বাড়তে পারে করোনার সংক্রমণ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ৮, ২০২০
পূজার শপিং করতে কলকাতায় ভিড়, বাড়তে পারে করোনার সংক্রমণ দোকানে ভিড় বাড়ছেই/ ছবি: বাংলানিউজ

কলকাতা: দুর্গা পূজার বাকি আর মাত্র দুই সপ্তাহের মতো। এই পরিস্থিতিতে পূজার মাসে স্বাস্থ্যবিধিকে কার্যত হেলায় উড়িয়ে ভিড় উপচে পড়ছে কলকাতার বাজারগুলোয়।

নিউমার্কেট থেকে গড়িয়াহাট বা হাতিবাগান সবখাইনে ভিড় বাড়ছে। তারা একেবারে ভুলে গেছে কাকে বলে শারীরিক দূরত্ব? এর কারণে করোনা সংক্রমণ আবার বেড়ে যায় কি-না তা নিয়ে চিন্তিত বিশেষজ্ঞরা।

সপ্তাহ দুয়েক আগেও শপিং-এর জন্যে এত ভিড় লক্ষ করা যায়নি। ফলে এই বছর পূজার বাজার কী হবে তা নিয়েও চিন্তায় ছিলেন ব্যবসায়ীরা। বর্তমানে পুরো ছবিটাই বদলে গেছে। নিউমার্কেট এলাকায় দেখা যাচ্ছে ভিড়। সপ্তাহের শুরু থেকেই মূলত এ ভিড় বাড়ছিল।

কিছুদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, পূজার বাজার চলবে। না হলে লোকের হাতে অর্থ আসবে কী করে? তবে প্রত্যেকে যেন মাস্ক পরে বাজারে যায়, সেদিকে লক্ষ রাখতে হবে। এরপর থেকেই জাঁকিয়ে বসতে শুরু করেছে দোকানপাট। শুরু হয়েছে মণ্ডপ তৈরির কাজ। তবে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে কেনাকাটা করতেই যদি এমন ভিড় হয় তবে পূজার চারদিন কী হাল হবে শহর কলকাতার!

ভিড় দেখে চিন্তিত কলকাতা পুলিশের কর্তারা। এক ট্র্যাফিক সার্জেন্ট অনুশোচনা করে জানান, করোনা রোগীও সামলাতে হচ্ছে। আবার এরমধ্যে পূজার কেনাকাটার ভিড়। তারপরে পূজার ভিড়ও সামলাতে হবে। পূজা মিটলে আমাদের কী অবস্থা হবে জানি না। সাধারণ মানুষ যেন সব ভুলতে বসেছে।  

সম্প্রতি রাজ্য পুলিশসহ কলকাতার পুলিশের অন্দরে হানা দিয়েছে করোনা। করোনায় প্রাণ গেছে বহু পুলিশের। ফলে পুলিশের মধ্যেও একটা আতঙ্ক কাজ করছে।

পুলিশ কর্তাদের মতে, কেনাকাটার এমন বেপরোয়া ভিড় চলতে থাকলে পূজার পরে সংক্রমণের হার অনেকটায় বেড়ে যাবে। পূজার ভিড়কে কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করবে তার সমস্ত দায়ভার রাজ্য সরকারের। আমাদের যেমনটা বলবে তেমন করবো। তবে এসব ভাবার সময় নেই রাজ্যবাসীর। অনেকের মুখে সঠিকভাবে মাস্ক নেই। কেনাকাটায় মশগুল হয়ে অনেকেরই মাস্ক নেমে এসেছে থুতনিতে, কারও বা মাস্ক ঝুলছে কানে।

আসানসোল থেকে নিউমার্কেটে পূজার শপিং করতে আসা এক ক্রেতার বক্তব্য, পূজা বাঙালির আবেগ। সারাবছর চারটে দিনের জন্যে অপেক্ষা করে থাকি। এখন আর সেভাবে করোনার প্রকোপ নেই, তাই আসা।

মূলত নিউমার্কেটে কেনাকাটার বেশিরভাগ ক্রেতাই আসেন কলকাতার পার্শ্ববর্তী ও দূরদূরান্ত জেলা থেকে। এরসঙ্গে এই সময় যুক্ত হতেন অনেক বাংলাদেশি। যদিও এবার বাংলাদেশিদের সেভাবে দেখা নেই। চিকিৎসার ভিসা নিয়ে আসছেন হাতেগোনা কয়েকজন।  

অপরদিকে এতদিন রাজ্যে পরিবহন সমস্যা থাকায় শহর কলকাতায় আসতে পারছিলেন না বেশিরভাগ মানুষ। মেট্রো চালু হতেই অনেক সুবিধা হয়েছে তাদের জন্য। তারা আসতে শুরু করেছেন কলকাতায়। ফলে পূজার কেনাকাটায় এক ধাক্কায় হঠাৎ করে ভিড় বাড়তে শুরু করেছে।

অপরদিকে, পশ্চিমবঙ্গে প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা শনাক্তের সংখ্যা। গত ১ দিনে করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৪৫৫ জন। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) পর্যন্ত মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৮০ হাজার ৫০৪ জন। এছাড়া ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৫৮ জনের। সবমিলিয়ে মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৩৭৬ জনের। এছাড়া গত ১ দিনে করোনা মুক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ২৩ জন। মোট করোনা মুক্ত হলেন ২ লাখ ৪৬ হাজার ৭৬৭ জন।

করোনাকালে পূজার দিনগুলো শেষে, করোনা মহামারি আবার জাঁকিয়ে বসতে পারে শহর কলকাতার বুকে, এমনই আশঙ্কা প্রকাশ করছেন পুলিশ থেকে করোনা বিশেষজ্ঞরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৮ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৮, ২০২০
ভিএস/এইচএডি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa