ঢাকা, শনিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

কলকাতায় চাহিদা বেড়েছে মাটির প্রদীপের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬২১ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০১৬
কলকাতায় চাহিদা বেড়েছে মাটির প্রদীপের ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কলকাতা: বিগত বছরগুলোতে কালীপূজার আগে চীন থেকে আমদানি করা হতো বিদ্যুৎচালিত ইলেক্ট্রনিক আলো। এ আলোর বদলে কলকাতায় এবছর ‘মাটির প্রদীপ’র চাহিদা বেড়েছে।

মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) কলকাতার বড়বাজার থেকে শুরু করে উত্তর ও দক্ষিণ কলকাতার বিভিন্ন বাজারে ঘুরে দেখা গেছে এ চিত্র।

ভারতে দিওয়ালি ও কালীপূজা উপলক্ষে প্রতিটি বাড়িকে আলো দিয়ে সাজানোর প্রথা চালু রয়েছে। মাটির প্রদীপের জায়গায় বেশকয়েক বছর ধরে সেখানে জায়গা করে নিয়েছিল ‘মেড ইন চায়না’ আলো।
 
ক্রেতারা জানিয়েছেন, দেশে তৈরি জিনিস কেনার বিষয়ে লাগাতার প্রচারের ফলে তারা ইলেক্ট্রনিক আলোর পরিবর্তে মাটির প্রদীপ ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

বিক্রেতারা জানান, চীন থেকে আমদানি করা আলোর চাহিদা এবছর অনেক কম। সেই সঙ্গে বেড়েছে মাটির প্রদীপের চাহিদা।
 
তবে ইলেকট্রনিক আলো বিক্রেতারা এর ফলে কিছুটা সমস্যায় পড়েছেন। যদিও তাদের মধ্যে অনেকেই মাটির প্রদীপ বিক্রি করতে শুরু করে দিয়েছেন। কলকাতাসহ ভারতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে দেশে তৈরি প্রদীপ ব্যবহার করা নিয়ে লাগাতার প্রচার চালানো হয়েছে। মনে করা হচ্ছে, সেই প্রচারের ফলেই মাটির প্রদীপের চাহিদা অনেকটাই বেড়েছে।
 
মৃৎশিল্পীরা জানান, বেশকয়েক বছর আগেও দিওয়ালি ও কালীপূজার সময় মাটির প্রদীপের বায়না ফেরত দিতে হতো। কিন্তু এবছর আবারও চাহিদা তুঙ্গে উঠেছে।
 
মাটির প্রদীপের চাহিদা বাড়ার ফলে একদিকে যেমন মৃৎ শিল্পীদের লাভের পরিমাণ বাড়বে, ঠিক তেমনি মাটির জিনিসি ব্যবহারের ফলে পরিবেশ দূষণ কিছুটা কমবে বলে মনে করছেন অনেকে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২২ ঘণ্টা, অক্টোবর ২৫, ২০১৬
এসএস/এএটি/এসএনএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।