ঢাকা, বুধবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২২ মে ২০২৪, ১৩ জিলকদ ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

কলকাতার মণ্ডপে সেলফি বনাম নো-সেলফি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ৬, ২০১৬
কলকাতার মণ্ডপে সেলফি বনাম নো-সেলফি ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কলকাতা: গোটা বিশ্বে এখন সেলফি তোলার অভ্যাস নিয়ে নানা ধরনের সমালোচনা চলছে। গত বছর সেলফি তোলার সমস্যায় জেরবারে ‘নো সেলফি জোন’ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিলো পূজো মণ্ডপগুলোকে।

তবে এবার দর্শকদের ভিড় টানতে এবং তাদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে আলাদা সেলফি জোন এবং ওয়াইফাই জোন নির্মাণ করছেন কিছু পূজোর উদ্যোক্তারা।

কলকাতার বড় পূজোর উদ্যোক্তারা জানান, ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে শুধু তরুণ প্রজন্মের কথা বিবেচনা করে।
 
এছাড়া বেশ কিছু উদ্যোক্তাদের মতে, তারা মানুষকে আশাহত করতে চান না। তাই তারা মণ্ডপের কাছেই তৈরি করবেন বিশেষ ‘সেলফি জোন’। কিন্তু উল্টো চিত্রও আছে। দুর্গা দেবীকে পেছনে রেখে মোবাইলে সেলফি তোলায় রাশ টানতে চাইছে প্রশাসন।

শহরের অনেক পূজো কমিটিই মণ্ডপের ভেতর সেলফি তোলার ক্ষেত্রে জারি করছে নিষেধাজ্ঞা। তবে তারাও মণ্ডপের বাইরে নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়ার পক্ষেই রায় দিচ্ছেন।

প্রচণ্ড ভিড়ে সেলফি তোলার ফলে সমস্যা বাড়ে বলে মত প্রশাসনের। তাই তারা এ বিষয়ের নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছেন। তবে খবর পাওয়া যাচ্ছে যেসব পূজোর মণ্ডপে আলাদা সেলফি জোন করা হচ্ছে তার জন্য আলাদা ‘স্পনসর’ পাচ্ছেন পূজো কমিটিগুলো। ফলে সেলফি তোলার সঙ্গে অর্থনৈতিক লাভের দিকটিও জুড়ে যাচ্ছে।

কলকাতার বিখ্যাত পূজো ‘শিবমন্দির সর্বজনীন’ এ উদ্যোক্তারা পূজোর চার দিনের মধ্যে একটি দিনকে সেলফি ডে হিসেবে ঘোষণা করবেন বলে ঠিক করেছেন। ভবানীপুরের ৭৫ পল্লীর থিম সদ্য সন্ত হওয়া মাদার টেরিজা। মাদার টেরিজাকে মূর্তিকে সামনে রেখে যাতে সেলফি তোলা যায় তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে পূজো কমিটির পক্ষে থেকে।
 
কাশী বোস লেন, নাকতলা উদয়ন সঙ্গ, শ্রী ভূমি স্পোর্টিং ক্লাব, টালা পার্ক, দমদম পার্কসহ বিখ্যাত কিছু বারোয়ারী পূজোতে মণ্ডপে এবং তার বাইরের অংশে থাকছে ওয়াইফাই জোন।

তবে সেলফি প্রবণতা কমাতে প্রশাসনের পক্ষে প্রচার চালান হবে। কারণ প্রশাসনের মতে এর ফলে শুধু ভিড়ের সমস্যা নয় নিরাপত্তার বিষয়টিও জড়িত।

অন্যদিকে অনেক পূজো কমিটি সেলফির সুফল-কুফল নিয়েও আলোচনা ব্যবস্থা রাখবে জনসচেতনতা বাড়ানোর স্বার্থে। এই তালিকায় রয়েছে ‘কুমোরটুলি পার্ক’ ও ‘সন্তোষ মিত্র স্কয়ার’।

এই দুই পূজো মণ্ডপে সেলফি নিষিদ্ধ করার সঙ্গে সঙ্গে এই বিষয়ে আলোচনার ব্যবস্থা করেছে মণ্ডপেই। তবে কলকাতার সব থেকে বিখ্যাত পূজো মণ্ডপগুলোর মধ্যে অন্যতম ‘মোহাম্মদ আলি পার্ক’ । সেখানে নেওয়া হয়েছে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা। তারা শুধু মণ্ডপেই সেলফি নিষিদ্ধ করেনি মণ্ডপের বাইরেও সেলফি নিষিদ্ধ করেছে। পরিস্থিতি যা দাঁড়িয়েছে তাতে কলকাতার পূজোর মণ্ডপগুলোর মধ্যে সেলফি নিয়ে সরাসরি দু‘টি ভাগ দেখা যাচ্ছে। এখন দেখার বিষয় সাধারণ মানুষ কোনো দিকে তাদের রায় দেন। পূজোর সেলফি নাকি সেলফি ছাড়া পূজো, পাল্লা কোনো দিকে ভারী থাকে তার উত্তর পাওয়া যাবে পূজোর দিনগুলোতেই।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৬, ২০১৬
এসএস/এএটি/আরআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।