ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

সরাসরি ভোটে দাঁড়াচ্ছেন না মমতা

রক্তিম দাশ, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১৫৫ ঘণ্টা, মে ২৪, ২০১১
সরাসরি ভোটে দাঁড়াচ্ছেন না মমতা

কলকাতা: সরাসরি ভোটে দাঁড়াচ্ছেন না মমতা ব্যানার্জি। তিনি বিধানপরিষদ থেকে নির্বাচিত হয়ে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করতে যাচ্ছেন।

এই লক্ষ্যে রাজ্য বিধানসভায় দ্রুত বিধানপরিষদ গঠনের বিল আসছে।

গত ২০ মে রাজ্যের প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথ নিয়েছেন তৃণমুলনেত্রী মমতা ব্যানার্জি। এবারের বিধানসভা নির্বাচনে তিনি ভোটে দাঁড়াননি। নিয়ম অনুযায়ী আগামী ৬ মাসের মধ্যে রাজ্যের কোনো একটি আসন থেকে তাকে নির্বাচিত হয়ে আসতে হবে।

তাই নিয়ে এখন রাজ্যের রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়েছে। একটি মহল থেকে প্রচার করা হচ্ছিল মমতার জন্য কলকাতার ভবানীপুর কেন্দ্রটি ছেড়ে দিতে পারেন রাজ্যের সুব্রত বকশী। কিন্তু তিনি বর্তমান পরিবহনমন্ত্রীর দায়িত্ব পাওয়ার কারণে এখন নতুন করে দুটি খবর শোনা যাচ্ছে।

বিধানসভা উপনির্বাচনে তিনি দাঁড়াবেন বেহালা পূর্ব কেন্দ্র থেকে। এই আসনে জয়ী হয়েছেন কলকাতার বর্তমান মেয়র শোভন চ্যাটার্জি। তিনি বিধায়ক পদ থেকে পদত্যাগ করে মেয়রের কাজে মনোনিবেশ করবেন। নন্দীগ্রাম কেন্দ্র থেকে নির্বাচনে মমতা দাঁড়ানোরও সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও একটি খবর হল, রাজ্যে পুনরায় বিধানসভা পরিষদ ঘটিত হবে। ১৯৭৭ সালের আগে পর্যন্ত রাজ্যে বিধানসভা পরিষদ ছিল। ভারতের রাজ্যসভার মতো এখানে বিধায়করা সরাসরি জনগণের ভোটে নির্বাচিত হন না।

রাজ্য বিধানসভার নির্বাচিত বিধায়কদের ভোটে বিধানপরিষদের সদস্যরা নির্বাচিত হন।

নতুন করে আবার রাজ্যে বিধানপরিষদ গঠনের পক্ষপাতি বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা। বিধানসভা ভোটের আগে তিনি সেই রকমই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। জুন-জুলাইয়ের মধ্যে এই বিধানপরিষদ ঘটিত হবে।

আর এই বিধানপরিষদের ভোটে সরাসরি জনগণের ভোটে নয়, বিধায়কদের ভোটে নির্বাচিত হয়ে বিধায়ক হয়ে আসবেন মমতা।

কলকাতার রাজনৈতিক মহল মনে করছে, পরিস্থিতি বিচার করলে দ্বিতীয় পথটি বেশি গ্রহণযোগ্য। কারণ, বিধানসভার উপনির্বাচন হলে মমতাকে নির্বাচনী প্রচারে যেতে হবে। আবার নতুন করে ভোট হলে ইসির নিয়ম অনুযায়ি নির্বাচনী বিধিনিষেধ চালু হবে।

আর তাতে রাজ্যে নতুন যেসব প্রকল্পের কাজ রাজ্য সরকার শুরু করেছে তা বন্ধ হয়ে যাবে বেশ কিছুদিনের জন্য। কিন্তু মমতা তা করতে চান না। তিনি চান রাজ্যে উন্নয়নের কাজগুলি দ্রুত শেষ করতে।

তাই মমতার সিদ্ধান্ত বিধান পরিষদের ভোটে তিনি দলীয় বিধায়কদের ভোটে জিতে আসবেন। এই বিধান পরিষদ গঠন নিয়ে জুন মাসেই মন্ত্রিসভায় প্রস্তাব আনা হবে। এবং সংখ্যগরিষ্ঠতার কারণে তা বিধানসভায় সহজেই পাস হয়ে যাবে বলে জানিয়েছে তৃণমুলের একটি বিশ্বস্ত সূত্র।

ভারতীয় সময়: ০১৪৭ ঘণ্টা, মে ২৪, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa