ঢাকা, রবিবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

বিনায়ক সেনের সংবর্ধনায় রাজবন্দিদের মুক্তি দাবি

রক্তিম দাশ, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১১৬ ঘণ্টা, মে ২৫, ২০১১
বিনায়ক সেনের সংবর্ধনায় রাজবন্দিদের মুক্তি দাবি

কলকাতা: ডা. বিনায়ক সেনের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান থেকে সাবেক বামফ্রন্ট সরকার আমলে গ্রেপ্তার রাজবন্দিদের মুক্তি দাবি করা হয়েছে।

দেশদ্রোহিতার আইনে গ্রেপ্তারের অভিযোগ থেকে সদ্য জামিন পাওয়া সমাজসেবী ডা. বিনায়ক সেনকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কলকাতায় সংবর্ধনা জানানো হয়।



সংবর্ধনার আয়োজন করে ‘ফ্রি বিনায়ক সেন ফ্যান ডক্টরস ইন সলিডারিটি’।

কলকাতার ইউনিভার্সিটি ইনস্টিটিউট হলে আয়োজিত ওই সংবর্ধনা সভায় ডা. বিনায়ক সেন বলেন,‘ পুষ্টির মাপকাঠি বডি মাস ইনডেস্ক অনুসারে ভারতের ৩৭ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ অপুষ্টির শিকার। ‘

এর মধ্যে তপসিলি উপজাতিদের ক্ষেত্রে এর পরিমাণ ৫০ শতাংশ, তপসিলি জাতির ক্ষেত্রে তা ৬০ শতাংশ বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, ‘সাচার কমিটি বলছে, সংখ্যালঘু মুসলমানদের একটা বড় অংশ এর শিকার। ৫ বছরের নিচে শিশুদের এ হার ৪৫ শতাংশ। ’

স্বাস্থ্যকে মানুষের অধিকার হিসাবে দেখতে হবে জানিয়ে ডা. বিনায়ক বলেন, ‘জল, জমি, জঙ্গলের মালিকানা থাকতে পারে না। কিন্তু ব্যক্তি মালিকদের স্বার্থে রাষ্ট্র এর ওপর মালিকানা অধিকার কায়েম করতে চাইছে। ‘

এ সময় দেশদ্রোহিতা আইনসহ বেশ কয়েকটি জনবিরোধী আইন প্রত্যাহারের দাবিতে ১০ লাখ মানুষের স্বাক্ষর সংগ্রহ করে লোকসভার শীতকালীন অধিবেশন শুরুর আগে তা জমা দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

এদিন তার হাতে মানপত্র ও উত্তরীয় তুলে দিয়ে সংবর্ধনা জানান কবি শঙ্খ ঘোষ।

লোকসভার এসএউসি’র সাংসদ তরুণ মন্ডল এদিন বলেন, ‘ডা. বিনায়ক সেনের সংগ্রাম শেষ হওয়ার নয়। ’

ডা. সেনের স্ত্রী ইলিনা সেন বলেন, তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল রাজনৈতিক কারণে।


এছাড়াও এদিন বক্তব্য রাখেন মানবধিকার কর্মী সুজাত ভদ্র ও নবারুণ ভট্টাচার্য।

উপস্থিত ছিলেন বিনায়ক সেনের মা অনুসূয়া সেন। সঙ্গীত পরিবেশন করেন পল্লব কীর্তনীয়া।

সভা থেকে পশ্চিমবঙ্গের নয়া সরকারের দাবি ওঠে, সাবেক বামফ্রন্ট আমলের রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তি দিতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১১০৮ ঘণ্টা, মে ২৫, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa