ঢাকা, সোমবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

পশ্চিমবঙ্গ কংগ্রেসের মন্ত্রী-তালিকা সোনিয়ার কাছে

আনোয়ারুল করিম, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৬ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০১১
পশ্চিমবঙ্গ কংগ্রেসের মন্ত্রী-তালিকা সোনিয়ার কাছে

কলকাতা থেকে: জোট করে নির্বাচনী বৈতরণী পার হওয়ার পর এবার মন্ত্রিসভাতেও হিস্যা চাইছে কংগ্রেস। রাজ্য সরকারের মন্ত্রী হওয়ার যোগ্যদের একটি খসড়া তালিকাও তৈরি করেছে প্রদেশ কংগ্রেস।

যদিও কংগ্রেস এখনও নিশ্চিত নয়, মমতা ব্যানাজি ক’টি মন্ত্রীপদ কংগ্রেসকে দেবেন।  

পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি মানস ভূঁইয়া মঙ্গলবার দুপুরে এ সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কথা বলতে নয়াদিল্লি গেছেন। তিনি সেখানে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে কথা বলবেন।

মন্ত্রীদের প্রস্তাবিত এই তালিকা নিয়ে মানস ভূঁইয়া, অর্থমন্ত্রী প্রণব মুখোপাধ্যায় ও অল ইন্ডিয়া কংগ্রেস কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাকিল আহমেদও মতামত জানাবেন বলে প্রদেশ কংগ্রেস সূত্র জানায়।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যাচ্ছে, কংগ্রেসকে ৩ থেকে ৫টি মন্ত্রিত্ব দিতে আগ্রহী তৃণমূল কংগ্রেস।  

কলকাতার বিধানভবনে কংগ্রেস কার্যালয় সূত্রের খবর, রাজ্য সরকারের মন্ত্রিসভায় অংশ নিতে চান নব নির্বাচিত এমএলএ’রা।

কংগ্রেস নেতৃবৃন্দ আশা করছেন, মন্ত্রিত্বের মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গে দুর্বল অবস্থান সবল করতে প্রচেষ্টা চালানো যাবে। বিশেষ করে রাজ্যের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশে কংগ্রেসের প্রভাব ও ভোট একেবারেই কম। তাই কংগ্রেস চাইছে, জনসংযোগ বেশি রয়েছে এমন দপ্তরের মন্ত্রিত্ব যেন তাদের দেওয়া হয়।    

কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক শাকিল আহমেদ নিজে সোমবার কলকাতায় নতুন এমএলএদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তাদের মনোভাবের পরিপ্রেক্ষিতে সোনিয়া গান্ধী ও প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথা বলে শাকিল আহমেদ প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্বকে মন্ত্রিত্বের তালিকা তৈরি করতে বলেন।  

কংগ্রেসের নির্বাচিত এমএলএদের মধ্য থেকে নানা যোগ্যতা ও বিবেচনায় কয়েকজনকে মন্ত্রী করা যেতে পারে বলে বাছাই করা হয়েছে।

এরা হলেন, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি মানস ভূঁইয়া, মুর্শিদাবাদের লালগোলার এমএলএ আবু হেনা, বীরভূমের হাসনের এমএলএ অসিত মাল, বীরভূমের নলহাটির এমএলএ অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় (প্রণব মুখোপাধ্যায়ের পুত্র), বর্ধমানের কাটোয়ার এমএলএ রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়, জলপাইগুড়ির দুই এমএলএ  দেবপ্রসাদ রায় ও সুখবিলাস বর্মা, বরকত গনি খান চৌধুরীর ভাই মালদহের সুজাপুরের এমএলএ আবু নাসের খান চৌধুরী, পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়গপুর সদরের এমএলএ জ্ঞানসিংহ সোহনপাল প্রমুখ।

মানস ভূঁইয়ার মন্ত্রী হওয়া নিয়ে দলে শর্ত আছে। তিনি যদি রাজ্য সরকারের মন্ত্রী হয়ে যান, তবে তাকে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদ ছাড়তে হবে। এখন মানসের সিদ্ধান্তের ওপরই বিষয়টি নির্ভর করছে।

মন্ত্রিসভার জন্য খসড়া তালিকা প্রসঙ্গে কংগ্রেস নেতা ও মালদহের ইংলিশবাজারের এমএলএ কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরী জানান, খসড়া তালিকা তৈরির হওয়ার কথা তিনিও শুনেছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৫ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০১১

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa