ঢাকা, রবিবার, ৭ বৈশাখ ১৪৩১, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

বাংলাদেশই ধর্মনিরপেক্ষতা ও গণতন্ত্র বজায় রেখেছে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৪
বাংলাদেশই ধর্মনিরপেক্ষতা ও গণতন্ত্র বজায় রেখেছে

কলকাতা: ইন্দোনেশিয়া থেকে আলজেরিয়া পর্যন্ত তাকালে দেখা যাবে শুধু বাংলাদেশ এমন একটি রাষ্ট্র যারা ধর্মনিরপেক্ষতা ও গণতন্ত্র বজায় রেখেছে।

সোমবার ‘কমিটি ফর আপহোল্ডিং সেকুলারিজম’ পশ্চিমবঙ্গ শাখার আয়োজনে কলকাতার 'অ্যাকাডেমি অফ ফাইন আর্টস'-এ আয়োজিত আলোচনা সভায় সাংবাদিক ও মানবাধিকার কর্মী শাহরিয়া কবির এ কথা বলেন।



এটি কলকাতায় আয়োজিত ‘কমিটি ফর আপহোল্ডিং সেকুলারিজম’-এর পশ্চিমবঙ্গ শাখার প্রথম সম্মেলন। ধর্মনিরপেক্ষতা বজায় রাখা ও প্রসারের জন্য ভারত, বাংলাদেশ ও পাকিস্তানে সংগঠনটি কাজ করে।

আলোচনা সভায় শ্রী মানস ঘোষসহ আরও বিশিষ্ট ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেম কবি গীতেশ শর্মা ও বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সৈয়দ তানভীর নাসরিন।

শাহরিয়ার কবির বাংলাদেশেসহ গোটা দক্ষিণ এশিয়ায় মৌলবাদের উত্থানের বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, নাগরিক সমাজের সাহায্য ছাড়া কোনো রাষ্ট্রের পক্ষে মৌলবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করে সফল হওয়া সম্ভব নয়।

তিনি আরও বলেন, ইন্দোনেশিয়া থেকে আলজেরিয়া পর্যন্ত দেখলে দেখা যাবে বাংলাদেশই শুধু এমন একটি রাষ্ট্র যারা ধর্মনিরপেক্ষতা ও গণতন্ত্র বজায় রেখেছে।

তিনি এ বিষয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রচেষ্টার কথা মনে করিয়ে দেন।

অনুষ্ঠানে বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ‘সেন্টার ফর পিস’-এর চেয়ারম্যান ও পি শাহ।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয় আগামী দিনে তুরস্কে শাখা বিস্তার করবে সংগঠনটি।

 বাংলাদেশ সময়: ২০৪১ ঘণ্টা, সেপ্টম্বর ২২, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।