ঢাকা, সোমবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫ শাওয়াল ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

নয়াদিল্লি থেকে খুররম জামান

জেসিসি বৈঠক চলছে

খুররম জামান, ডিপ্লোম্যাটিক অ্যাফেয়ার্স এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৪
জেসিসি বৈঠক চলছে ছবি: সংগৃহীত

নয়াদিল্লি থেকে: বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে যৌথ পরামর্শক কমিশন (জেসিসি) বৈঠক শুরু হয়েছে। শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় বৈঠক শুরু হয়।



বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী ও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ বৈঠকের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

সূত্রে জানা গেছে, যৌথ কমিশনের বৈঠকে অনিষ্পন্ন বিষয়াদিসহ সীমান্ত হত্যাকাণ্ড কমাতে নিরাপত্তা সহযোগিতা ও সীমান্ত ব্যবস্থাপনা, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সহযোগিতা, বাণিজ্য ও উন্নয়ন, আঞ্চলিক ও উপ আঞ্চলিক, জনসংযোগ ও সাংস্কৃতিক বিনিময়, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এবং পরিবেশ সহযোগিতা বিষয়ে আলোচনা হবে।

হাইকমিশন সূত্রে জানা গেছে, পানি বণ্টন সংক্রান্ত বিষয়ে তিস্তাসহ অভিন্ন নদীগুলোর পানির সুষম বণ্টন, যৌথ নদী কমিশনের পরবর্তী বৈঠক অনুষ্ঠানের বিষয়গুলো উত্থাপন করবে বাংলাদেশ।

এছাড়া বিমসটেক, সার্ক, বিসিআইএম-ইকোনমিক করিডোর প্রভৃতির আওতায় আঞ্চলিক সহযোগিতার ক্ষেত্রগুলো নিয়ে জেসিসি বৈঠকে আলোচনা হবে। একইসঙ্গে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দু’দেশের মধ্যকার সমঝোতা বৃদ্ধির বিষয়গুলোও আলোচিত হবে।

বৈঠক শেষে বিকেল সাড়ে ৫টায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার হোটেলে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করবেন।

হাইকমিশন সূত্র জানায়, বৈঠক শেষে মধ্যরাতে দিল্লি থেকে জাতিসংঘের ৬৯তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের উদ্দেশে যাত্রা করবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তার সঙ্গে পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক এবং প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের মুখ্য সচিব আবদুস সোবহান সিকদারও সেখানে যাবেন।

বাংলাদেশ সময়: ১০৪৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৪

** বঙ্গবন্ধু স্থপতি, হাসিনার হাতে সুরক্ষা বাংলাদেশের, বললেন মোদী
** সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে আলোচনা
** বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ গ্রহণ মোদীর
** সব সময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে ভারত
** সারদা প্রসঙ্গ ভারতের অভ্যন্তরীণ
** তিস্তাসহ অমীমাংসিত বিষয়ে আলোচনা হয়েছে
** জানুয়ারিতে ঢাকায় আসতে পারেন মোদী
** সমঝোতায় প্রাপ্য আদায়ে সচেষ্ট হবে বাংলাদেশ
** দিল্লির ফুটপাতেও মোটর সাইকেল!
** দিল্লিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী
** তিস্তা চুক্তিতে জোর দেবে বাংলাদেশ
** সাবেক কংগ্রেস মন্ত্রীর পানির লাইন বিচ্ছিন্ন

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।