ঢাকা, বুধবার, ২৫ মাঘ ১৪২৯, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৬ রজব ১৪৪৪

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

ত্রিপুরা সফরে যাচ্ছেন মমতা-অভিষেক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২৩
ত্রিপুরা সফরে যাচ্ছেন মমতা-অভিষেক

আগরতলা(ত্রিপুরা): বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে ৬ ফেব্রুয়ারি ত্রিপুরায় আসছেন পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি দুই দিনের সফরে রাজ্যে আসছেন।

 

সফরের প্রথম দিন তিনি রাজ্যের গোমতী জেলার উদয়পুরের ত্রিপুরা সুন্দরী মন্দিরে পূজা দেবেন এবং রাজ্যের নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করবেন। পর দিন আগরতলায় একটি মহামিছিল করবেন ও সভা করবেন। সবশেষে দিন কলকাতা ফিরে যাবেন।  

মঙ্গলবার(২৪ জানুয়ারি) বিকেলে রাজধানী আগরতলার চিত্তরঞ্জন রোড এলাকার দলের প্রদেশ কমিটির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য জানান তৃণমূল কংগ্রেসের ত্রিপুরা রাজ্যের ইনচার্জ রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরা প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচন কমিটির চেয়ারম্যান পীযুষ বিশ্বাস, সংসদ সুস্মিতা দেব, দলের নির্বাচন কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান আশিষ লাল সিং ও ত্রিপুরা প্রদেশ মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী পান্না দেব।  

প্রদেশ সভাপতি পীযুষ বিশ্বাস জানান, সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ২ বা ৩ ফেব্রুয়ারি আগরতলায় আসবেন। এরপর নির্বাচনের আগে একাধিকবার আসবেন। প্রাথমিকভাবে সিপাহীজলা জেলার সোনামুড়া মহকুমা এলাকায় এবং উত্তর জেলার ধর্মনগরে একটি সভা করবেন। এরপর রাজ্যের একাধিক জায়গায় সভাতে অংশ নেবেন। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আরও এক ঝাঁক নেতা-নেত্রী অভিনেতা-অভিনেত্রী রাজ্যে আসবেন। তারা বিভিন্ন জায়গায় তৃণমূলের হয়ে প্রচার করবেন।

তিনি জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ৬ ফেব্রুয়ারি বিকেলে ত্রিপুরা রাজ্যে আসবেন। তার সফরের দ্বিতীয় ও শেষ দিন আগরতলায় একটি মহা মিছিল ও সভা করবেন। মিছিলটি রাজধানী রবীন্দ্র শতবার্ষিকী ভবনের সামনে থেকে শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন রাস্তা ঘুরে আবার রবীন্দ্র ভবনের সামনে এসে শেষ হবে এবং সেখানে একটি সভা অনুষ্ঠিত হবে। সব শেষে তিনি কলকাতা ফিরে যাবেন।  

এই সভাকে সফল করার জন্য ইতিমধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছে দল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখার জন্য সেদিন আগরতলা শহরে ঐতিহাসিক জনজমায়েত হবে বলেও মনে করে পীযুষ বিশ্বাস।  

সংবাদ সম্মেলনে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন এগিয়ে এসেছে। তাই রাজ্যের বিভিন্ন স্তরের নেতৃত্বদের নিয়ে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে দলীয় কার্যালয়ে। জেলা ও ব্লক স্তরের সব নেতা উপস্থিত ছিলেন এদিনের এই বৈঠকে। নির্বাচনের কৌশল থেকে শুরু করে প্রার্থী বাছাই ইত্যাদি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।  

রাজ্যের ৬০টি বিধানসভা আসনের প্রার্থী বাছাইয়ের জন্য দলের নেতাকর্মীদের কাছ থেকে আবেদন নেওয়া হয়েছে। ১২৯ জন বিভিন্ন বিধানসভা কেন্দ্রে প্রার্থী হওয়ার আবেদন করেছেন। এই আবেদনগুলো পরীক্ষা করে সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে পাঠানো হয়েছে। প্রদেশ সভাপতিসহ অন্যান্যদের সঙ্গে বৈঠক করে প্রার্থী তালিকা প্রায় চূড়ান্ত করা হয়েছে। কয়েকদিনের মধ্যে তালিকা দেওয়া হবে বলেও এদিন জানান তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৪, ২০২৩ 
এসসিএন/আরএইচ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa