ঢাকা, শনিবার, ২১ মাঘ ১৪২৯, ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১২ রজব ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

চট্টগ্রামে শেষ হলো ফুড ফ্যাস্টিভ্যাল

নিউজ ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২২
চট্টগ্রামে শেষ হলো ফুড ফ্যাস্টিভ্যাল

চট্টগ্রাম: নগরের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামের জিমনেশিয়াম মাঠে তিন দিনব্যাপী চট্টগ্রাম ফুড ফেস্টিভ্যাল ২০২২ শেষ হয়েছে।  সমাপনী দিন রোববার (২৭ নভেম্বর) সনদ ও সম্মননা দেওয়া হয়েছে।

 

হুইজ কমিউনিকেশন্সের সার্বিক তত্ত্বাবধানে ফেসবুক ভিত্তিক গ্রুপ ফুড মাস্টারের আয়োজনে সমাপনী অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন আরামিট গ্রুপের পরিচালক তৌহিদুল আনোয়ার, শিল্পোদ্যোক্তা গোলাম বাকী মাসুদ, বাংলাদেশ টেলিভিশনের নির্বাহী প্রয়োজক ইলন শফির, করপোরেট ব্যক্তিত্ব কসশাফুল হক শেহজাদ, চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থার কাউন্সিলর সাইফুল আলম খান খান ও চিটাগাং লাইভের নির্বাহী পরিচালক সাবের শাহ।  

হুইজ কমিউনিকেশন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদ বকুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন হুইজ কমিউনিকেন্সের পরিচালক প্রশাসন কাজী আরফাত, ফুড মাস্টারের অ্যাডমিন রায়হান ইসলাম, শাহাদাত হোসেন ইহাম।

 

গত ২৪ নভেম্বর বিকেলে ফেস্টিভ্যাল উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। উৎসবের দ্বিতীয় দিন বিশেষ সম্মাননা দেওয়া হয় রোদেলা বিকেলের স্বত্বাধিকারী রফিকুল বাহার, তরুণ উদ্যোক্তা লিটল এশিয়া ও ক্যাফে মিলানোর স্বত্বাধিকারী বোরহানুল হাসান চৌধুরী ও ফুড ব্লগিং পেজ জোলতান বিডিকে। একইসঙ্গে বিগত ৫টি ফুড ফেস্টিভ্যালে ধারাবাহিক অংশগ্রহণের জন্য ৫টি রেস্টুরেন্টকেও সম্মাননা জানানো হয়। ধারাবাহিক অংশগ্রহণকারী রেস্টুরেন্ট হচ্ছে বারকোড, সাদিয়া'স কিচেন, লেক ডাইন, সেভেন ডেইজ ও বিসমিল্লাহ জুস ঘর। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক পূর্বকোণের পরিচালনা সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের উপ মহাপরিচালক অনুপ খাস্তগীর।

অতিথিরা খাদ্যে ভেজালবিরোধী আন্দোলনে এক হওয়ার আহবান জানান। এ ছাড়াও রেস্টুরেন্ট মালিকদের খাবার পরিবেশনের সময় স্বাস্থ্য সচেতন হতে ও মান বজায় রাখতে অনুরোধ জানান।

উৎসব প্রসঙ্গে মাসুদ বকুল বলেন, চট্টগ্রামের খাবার সারাদেশের ভোজনপ্রিয়দের মধ্যে পরিচিত করতে এই উৎসব উল্লেখ্যযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ করছি।

উৎসবের সমন্বয়কারী কাজী আরফাত বলেন, ফুড ফেস্টিভ্যালের মাধ্যমে রেস্টুরেন্ট, উদ্যোক্তা ও ক্রেতাদের মধ্যে একটা ভালো সম্পর্ক গড়ে তোলা সম্ভব, যা উভয়ের প্রত্যাশা পূরণে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।   

ফুড মাস্টারের অ্যাডমিন রায়হান বলেন, প্রতিবছরের ধারাবাহিকতায় ফুড মাস্টার গ্রুপের পক্ষ থেকে আমরা নিয়মিত ফুড ফেস্টিভ্যালের আয়োজন করে থাকি। এই ফেস্টিভ্যাল এখন ভোজনরসিকদের মিলনমেলার বড় স্থান হিসেবে পরিণত হয়েছে। চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী ও জনপ্রিয় সব খাবারকে তুলে ধরতে ভবিষ্যতেও আমাদের এ ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে।

খাবারের পাশাপাশি এ আয়োজনে দর্শকদের জন্য ছিল মজাদার গেইম শো, ডিজে, ব্যান্ড, আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক পরিবেশনাসহ নানা আয়োজন। গেইম শো বিজয়ীদের জন্য ছিল আকর্ষণীয় ফুড কুপন ও ফুড প্লেটার।  

নগরের ৪০টি স্বনামধন্য রেস্তোরাঁ ও ক্যাফে অভাবনীয় সব ডিসকাউন্ট অফার নিয়ে এই উৎসবে অংশ নিয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২২
এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa