ঢাকা, সোমবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ আগস্ট ২০২২, ১৬ মহররম ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

ফেসবুকে ধর্ম নিয়ে পোস্ট: স্কুল শিক্ষকের ৮ বছরের কারাদণ্ড

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২১ ঘণ্টা, জুলাই ৪, ২০২২
ফেসবুকে ধর্ম নিয়ে পোস্ট: স্কুল শিক্ষকের ৮ বছরের কারাদণ্ড প্রতীকী ছবি

চট্টগ্রাম: বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা, অশ্লীল, মানহানিকর ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করার অভিযোগে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলায় এক শিক্ষককে ৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (৪ জুলাই) চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ জহিরুল কবির এ রায় দেন।

 

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দেবব্রত দাস প্রকাশ দেবু দাস, নোয়াখালী জেলার হাতিয়া থানার পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের সুবল চন্দ্র দাসের ছেলে। তিনি স্থানীয় চৌমুহনী উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন।  

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ১৫ অক্টোবর ও ২৮ অক্টোবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক আইডি Debu das Debe das থেকে বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা, অশ্লীল, মানহানিকর ও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করা লেখা পোস্ট করেন। এ ঘটনায় ২০১৭ সালের ১ নভেম্বর হাতিয়া থানায় এসআই হুমাইন কবির বাদী হয়ে মামলা করেন। হাতিয়া থানার মামলা নম্বর: ১(১১)১৭। ২০১৮ সালের ১০ জুন তৎকালীন দেশের একমাত্র ঢাকায় সাইবার ট্রাইব্যুনাল বিচারক মোহাম্মদ আসসামস জগলুল হোসেনের আদালতে অভিযোগ গঠন করা হয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন-২০০৬ (সংশোধিত-১৩) এর ৫৭ (২) ধারার অভিযোগ আনা হয়। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি দেব ব্রত দাস আদালতে দোষ স্বীকার করেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ৬ জন ও আসামি পক্ষে ২ জন সাফাই সাক্ষ্য দেন।  

চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাইবার ট্রাইব্যুনালের পিপি মেজবাহ উদ্দীন চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, ধর্মীয় অনুভূতি আঘাতের মামলায় দেবব্রত দাস প্রকাশ দেবু দাস নামের এক শিক্ষককে ৮ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রায়ের সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৩ ঘণ্টা, জুলাই ০৪, ২০২২
এমআই/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa