ঢাকা, রবিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ জুলাই ২০২২, ০২ জিলহজ ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

‘শিক্ষার্থীদের মাঝে মূল্যবোধ জাগ্রত করছে ইডিইউ’

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪৮ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২২
‘শিক্ষার্থীদের মাঝে মূল্যবোধ জাগ্রত করছে ইডিইউ’ ওরিয়েন্টেশনে বক্তব্য দেন উপাচার্য অধ্যাপক মুহাম্মদ সিকান্দার খান।

চট্টগ্রাম: আগামী দিনের প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে সফল হতে হলে লিডারশিপ, ইনোভেশন, ক্রিটিক্যাল থিংকিং, ইমোশনাল ইন্টেলিজেন্স- এসব দক্ষতা জরুরি। উদ্ভাবন ও বুদ্ধিমত্তাই হলো জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সার কথা।

ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটিতে শিক্ষার্থীদের এ পথেই গড়ে তুলতে সচেষ্ট আমরা। পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষাদানের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মাঝে মূল্যবোধও জাগ্রত করছি। বর্তমান যুগ প্রযুক্তির, তাই বলে মানবিকতাকে হারিয়ে ফেলা যাবে না।

ইস্ট ডেল্টা ইউনিভার্সিটির সামার ২০২২ সেমিস্টারের ওরিয়েন্টেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন উপাচার্য অধ্যাপক মুহাম্মদ সিকান্দার খান। শনিবার (২১ মে) বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের রঙিন স্বপ্ন বুকে নিয়ে ভর্তি হওয়া নবীন শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিতে ওরিয়েন্টেশন ও চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানের আয়োজন করে ইডিইউ কর্তৃপক্ষ। সকাল ১১টায় নগরের খুলশীস্থ ইডিইউ ক্যাম্পাসে এ অনুষ্ঠানে নতুন শিক্ষার্থীরা তাদের অভিভাবকদের সঙ্গে নিয়ে যোগ দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ভাইস চেয়ারম্যান সাঈদ আল নোমান ইডিইউতে পড়ার সুযোগ পাওয়া নবীন শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানিয়ে এক শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন, সর্বাধুনিক ও বিশ্বমানের শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে জাতিকে গড়ে তুলতে রাজধানী ঢাকায় না করে তুলনামূলক পিছিয়ে থাকা চট্টগ্রামে প্রতিষ্ঠা করেছি এ বিশ্ববিদ্যালয়। নিত্যনতুন উদ্যোগ ও সুযোগসুবিধা যুক্ত করে ইডিইউকে একটি মডেল বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরে কাজ করছি আমরা সকলেই। এখানকার শিক্ষার্থী যাতে নিজ শহরেই বিশ্বের উন্নত বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ালেখার স্বাদ গ্রহণ করতে পারে, অভিভাবকরাও যাতে সন্তানের বেড়ে ওঠায় নিশ্চিন্ত হতে পারে।

নবাগত শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কে ধারণা দেওয়া হয় অনুষ্ঠানে। দুই পর্বে অনুষ্ঠিত হয় ওরিয়েন্টেশন। প্রথম পর্বে শিক্ষার্থীদের সামনে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যেকটি অনুষদের শিক্ষকদের পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়।

স্বাগত বক্তব্য দেন রেজিস্ট্রার সজল কান্তি বড়ুয়া। বিশেষ অতিথি উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক সামস উদ-দোহা। বক্তব্য দেন তিন স্কুলের ডিন অধ্যাপক ড. নাজিম উদ্দিন, অধ্যাপক ড. রকিবুল কবির ও সহযোগী অধ্যাপক মুহাম্মদ শহিদুল ইসলাম। এ সময় সকল ফ্যাকাল্টি মেম্বার ও কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ সময়: ১২৩০ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২২
এসি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa