ঢাকা, শুক্রবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ মে ২০২২, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

করোনা টিকার আওতায় চট্টগ্রামের শতভাগ শিক্ষার্থী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯২৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২২
করোনা টিকার আওতায় চট্টগ্রামের শতভাগ শিক্ষার্থী ছবি: বাংলানিউজ

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলার বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শতভাগ শিক্ষার্থীকে করোনা টিকার আওতায় আনা হয়েছে বলে দাবি করেছেন চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. মো. ইলিয়াছ চৌধুরী।  

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় সিভিল সার্জন ডা. মো. ইলিয়াছ চৌধুরী বাংলানিউজকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীদের করোনা ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হয়েছে। জেলা শিক্ষা অফিস থেকে প্রাপ্ত তালিকা অনুযায়ী গত বছরের ১৬ নভেম্বর থেকে চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত সিটি করপোরেশন এলাকায় এবং গত ৮ জানুয়ারি থেকে ২৪ জানুয়ারী পর্যন্ত ১৫ উপজেলার ১২-১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকা দেওয়া হয়। এতে মোট ৮ লাখ ৭২ হাজার ২৫৬ জন শিক্ষার্থীকে ফাইজারের প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে। এরমধ্যে মহানগরের ৩২ হাজার ৮৪ জন শিক্ষার্থী দ্বিতীয় ডোজের আওতায় এসেছে।  

তিনি বলেন, এরপরও কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যদি টিকা না পাওয়ার দাবি করে তাহলে সংশ্লিষ্ট দফতরের মাধ্যমে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদেরও টিকার আওতায় আনতে প্রস্তুত আছি।  

জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্যানুযায়ী, ১২-১৮ বছর বয়সী মোট ৮ লাখ ৭২ হাজার ২৫৬ জন শিক্ষার্থীকে ফাইজারের প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। সিটি করপোরেশন স্কুল ক্যাম্পেইনের আওতায় স্কুল ও কমিউনিটি সেন্টারগুলোতে মোট ২ লাখ ৮৯ হাজার ৮৩০ জন শিক্ষার্থী ফাইজারের টিকা পেয়েছে। এর মধ্যে ৩২ হাজার ৮৪ জন শিক্ষার্থীকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া উপজেলা পর্যায়ে স্কুল ক্যাম্পেইনের আওতায় কমিউনিটি সেন্টার, স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও অফিসে মোট ৫ লাখ ৮২ হাজার ৪২৬ জন শিক্ষার্থীকে প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে।  

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ফরিদুল আলম হোসাইনী বলেন, বিভিন্ন স্কুল থেকে প্রাপ্ত তালিকা অনুযায়ী ১২-১৮ বছর বয়সী সকল শিক্ষাথী ফাইজার ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে। অনেকে দ্বিতীয় ডোজ ভ্যাকসিনও গ্রহণ করেছে। যদি কোন শিক্ষার্থী ভ্যাকসিন গ্রহণ থেকে বাদ পড়ে তারাও ভ্যাকসিনের আওতায় আসবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২২
এমআর/টিসি
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa