ঢাকা, রবিবার, ৮ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

চট্টগ্রামে এক মাসে ৫ হাতির মৃত্যু 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৫৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২১
চট্টগ্রামে এক মাসে ৫ হাতির মৃত্যু  সংগৃহীত ছবি

চট্টগ্রাম: গত এক মাসে সাতকানিয়া, চকরিয়া, ঈদগাহ ও বাঁশখালীতে বিভিন্ন কারণে ৫টি হাতির মৃত্যু হয়েছে। শুধু বাঁশখালীতেই ১৯ দিনের ব্যবধানে ২টি হাতির মৃত্যু হয়েছে।

 

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) রাতেই বাশঁখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের লটমনি পাহাড়ি এলাকায় একটি হাতির মৃত্যু হয়। হাতিটির মৃত্যুর কারণ জানতে পারেনি বন বিভাগের কর্মকর্তারা।

গত ১২ নভেম্বর উপজেলার পূর্ব চাম্বল ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ছোট বিল এলাকা থেকে আরেকটি হাতির মরদেহ উদ্ধার করে বন বিভাগ।

বন বিভাগের কালীপুর রেঞ্জের কর্মকর্তা মো. আলমগীর বাংলানিউজকে বলেন, স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। তবে এর আগে হাতিটি মাটি চাপা দেওয়া হয়েছিল। পরে আমরা মৃত হাতিটিকে মাটির নিচ থেকে উদ্ধার করি। ইতোমধ্যে ময়নাতদন্তের জন্য ডুলাহাজরা সাফারি পার্ক থেকে চিকিৎসক এসে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।  

জানা গেছে, গত এক মাসে চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় বৈদ্যুতিক শকে, কক্সবাজারের চকরিয়ায় গুলিতে, কক্সবাজারের ঈদগাঁও পাহাড়ের খাদে এবং বাঁশখালীতে ধানক্ষেতের পাশে ৫টি হাতির মৃত্যু হয়।

হাটহাজারী রেঞ্জের বন কর্মকর্তা ফজলুল কাদের বাংলানিউজকে বলেন, কৃষক ফসল নষ্ট করার শঙ্কায় তারা বিভিন্ন ফাঁদ পাতে। এমনকি বৈদ্যুতিক ফাঁদও। হাতিগুলো যখন পাহাড় খাবারের সংকট হয় তখন তারা লোকালয়ে আসে এবং ফাঁদে পড়ে, মৃত্যু হয়।  

তিনি বলেন, একসময় পাহাড়ে প্রচুর পরিমাণে কলাগাছ ও বাঁশ ছিল যেগুলো হাতির প্রধান খাদ্য ছিল। এখন সেখানে মানুষের বসবাস বেড়ে গেছে। তাই হাতি আর মানুষ মুখোমুখি হচ্ছে। মানুষের পাতানো ফাঁদে হাতির মৃত্যু হচ্ছে।  

চট্টগ্রাম দক্ষিণের বন বিভাগের জীববৈচিত্র্য কর্মকর্তা খোরশেদ আলম বাংলানিউজকে বলেন, আমরা রাতদিন পরিশ্রম করে যাচ্ছি। সচেতনতামূলক প্রচারণা চলছে। হাতি হত্যার কুফল এবং অপরাধ সম্পর্কে আমরা জনগণকে অবহিত করছি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১, ২০২১
বিই/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa