ঢাকা, রবিবার, ৯ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

জেলা স্বাস্থ্য তত্ত্বাবধায়ক সুজন বড়ুয়ার বাবা আর নেই

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০৪৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০২১
জেলা স্বাস্থ্য তত্ত্বাবধায়ক সুজন বড়ুয়ার বাবা আর নেই বিমল চন্দ্র বড়ুয়া

চট্টগ্রাম: কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলার মরিচ্যা বাজারের প্রয়াত রেবতী রঞ্জন বড়ুয়ার ছেলে ও অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক বিমল চন্দ্র বড়ুয়া (৬৯) আর নেই।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) ভোর ৫টা ৩৯ মিনিটে চট্টগ্রাম ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরলোকগমন করেন তিনি।

তিনি স্ট্রোকজনিত রোগে ভুগছিলেন। প্রয়াত শিক্ষক বিমল চন্দ্র বড়ুয়া চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের জেলা স্বাস্থ্য তত্ত্বাবধায়ক সুজন বড়ুয়ার বাবা। মৃত্যুকালে স্ত্রী, তিনি ৩ ছেলে, ১ মেয়ে, ২ পুত্রবধূ, অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে নিজবাড়ির পারিবারিক শ্মশানে প্রয়াতের সৎকার হবে। বিমল চন্দ্র বড়ুয়া একজন স্বনামধন্য পল্লি চিকিৎসক, মরিচ্যা বাজারের ‘নয়ন’  ফার্মেসির স্বত্ত্বাধিকারী ছিলেন। ১৯৫২ সালের ১ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন প্রয়াত শিক্ষক বিমল চন্দ্র বড়ুয়া।  ১৯৮২ সালে উখিয়ার মরিচ্যা পালং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অবৈতনিক শিক্ষক হিসেবে শিক্ষকতা শুরু করেন। পরে উত্তর বড়বিল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করেন। ১৯৮৭ সালে গোরাইয়ারদ্বীপ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন এবং ২০১৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ২৭ বছর প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেন।

বিমল চন্দ্র বড়ুয়ার মুত্যুতে গভীর শোক প্রকাশসহ পরিবার-পরিজনের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবীর, চট্টগ্রাম ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্ববাবধায়ক ডা. সেখ ফজলে রাব্বি, চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন ডা, মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী, ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আসিফ খান, সিভিল সার্জন কার্যালয়ের এমওডিসি ডা. মো. নুরুল হায়দার, এমওসিএস ডা. মো. ওয়াজেদ চৌধুরী অভিসহ স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্নস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

বাংলাদেশ সময়: ০৯২০ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০২১ 
এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa