ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

প্রথম দিন টিকা পেলেন চট্টগ্রামের ২০০ বেদে 

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২১
প্রথম দিন টিকা পেলেন চট্টগ্রামের ২০০ বেদে  টিকা নিচ্ছেন বেদে সম্প্রদায়ের লোকজন।

চট্টগ্রাম: নগরের বেদে সম্প্রদায়কে প্রথমবারের মতো কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে মনসুরাবাদের বেদে পল্লীতে ভ্যাকসিন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী।

প্রথম দিন ২০০ বেদে জনগোষ্ঠীকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে।  

ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ আসিফ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এসআইএমও ডা. এফএম জাহেদুল ইসলাম, জেলা স্বাস্থ্য তত্ত্বাবধায়ক সুজন বড়ুয়া, হেলথ এডুকেটর প্রবীর মিত্র ও নবজাগরণ হিজড়া শ্রমজীবী সমবায় সমিতি লিমিটেডের সভাপতি ফাল্গুনী হিজড়া।  

সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী বলেন, হিজড়া ও বেদে সম্প্রদায়সহ পিছিয়ে থাকা অন্যান্য জনগোষ্ঠীদের জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকলেও তারা আমাদের সমাজেরই মানুষ। সুরক্ষা অ্যাপসের মাধ্যমে তারা ভ্যাকসিনের রেজিস্ট্রেশন করতে পারছেন না। তাদের বাদ দিয়ে আমরা সুরক্ষিত থাকতে পারি না। তাই সাধারণ মানুষের পাশাপাশি আমরা বেদে ও হিজড়া জনগোষ্ঠীকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনতে পেরেছি। এভাবে পিছিয়ে পড়া সমাজের অন্যান্য জনগোষ্ঠীকেও ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হবে।  

এর আগে গত ২২ নভেম্বর সিভিল সার্জন কার্যালয়ে প্রথম পর্যায়ে ৩৫০ জন তৃতীয় লিঙ্গের (হিজড়া জনগোষ্ঠী) জনগোষ্ঠীকে কোভিড ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশে স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে হিজড়া ও বেদে জনগোষ্ঠীর মধ্যে ভ্যাকসিন প্রদান চট্টগ্রামেই প্রথম।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের স্বাস্থ্যখাতে এটিই প্রথম পদক্ষেপ। বেদে ও হিজড়াসহ কোনো জনগোষ্ঠীই যাতে ভ্যাকসিন কার্যক্রমের আওতার বাইরে না থাকে সে বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে স্বাস্থ্য বিভাগ। নিবন্ধনের ঝামেলা ছাড়াই ভ্যাকসিন নিতে পেরে বেদে জনগোষ্ঠী খুশী। যে শ্রেণির মানুষ কিংবা লিঙ্গের হোক না কেন কেউ এ কার্যক্রম থেকে বাদ যাবে না, পর্যায়ক্রমে সবাইকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনা হবে।  

ভ্যাকসিন নিতে আসা বেদে সম্প্রদায়ের বুবলি ও তাহিরুণ স্বাস্থ্য বিভাগকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, নিবন্ধনসহ বিভিন্ন কারণে আমরা এতদিন কোভিড ভ্যাকসিন নিতে পারিনি। নবজাগরণ হিজড়া শ্রমজীবী সমবায় সমিতি লিমিটেডের সভাপতি ফাল্গুনী হিজড়ার সহযোগিতায়  স্বাস্থ্য বিভাগের আন্তরিকতায় অত্যন্ত সুন্দর পরিবেশে ভ্যাকসিন নিতে পেরে আমরা অত্যন্ত খুশি।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১২ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২১
এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa