ঢাকা, সোমবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

মণ্ডপে হামলায় জড়িতদের শাস্তি দাবি পূজা উদযাপন পরিষদের

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৩৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২১
মণ্ডপে হামলায় জড়িতদের শাস্তি দাবি পূজা উদযাপন পরিষদের

চট্টগ্রাম: শারদীয় দুর্গোৎসবে সারাদেশে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, চট্টগ্রাম মহানগর।  

রোববার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের এস রহমান হলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানানো হয়।

এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লায়ন আশীষ কুমার ভট্টাচার্য্য।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, কুমিল্লায় পরিকল্পিত ঘটনা সাজিয়ে দুর্গাপূজায় হামলা, প্রতিমা ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। পরবর্তীতে চট্টগ্রামের প্রধান পূজামণ্ডপ জেএম সেন হল সহ বিভিন্ন জেলায় একই কায়দায় হামলা, লুটপাট, ভাংচুর চালানো হয়। স্বাধীন ধর্মচর্চায় হামলা বাংলার আবহমান সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের চক্রান্ত।  

তারা বলেন, দেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করে যারা আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে চায় তাদেরকে দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানাচ্ছি। এছাড়া সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীরা যাতে আর প্রশ্রয় না পায় সেজন্য সরকার ও প্রশাসনকে দ্রুত কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।  

এসময় পূজা উদযাপন পরিষদ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করেন। ঘোষিত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- ১৮ অক্টোবর বিকাল ৪টায় চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন, ১৯ অক্টোবর জেএম সেন হলে সকাল ১১টা হতে ১টা পর্যন্ত প্রতীকী অনশন, ২১ অক্টোবর জেএম হল প্রাঙ্গণে বিকাল ৩টায় সমাবেশ, ২২ অক্টোবর একই স্থানে সন্ধ্যা ৬টায় মোমবাতি প্রজ্বালনের মাধ্যমে প্রতিবাদ।  

এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক হিল্লোল সেন উজ্জ্বল, জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন, মহানগর পূজা পরিষদের সাবেক সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা অরবিন্দ পাল অরুন, অ্যাডভোকেট চন্দন তালুকদার, সহ-সভাপতি অধ্যাপক অর্পন কান্তি ব্যানার্জী, সুমন দেবনাথ, রত্নাকর দাশ টুনু, অরূপ রতন চৌধুরী, সাংবাদিক প্রদীপ শীল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শ্রীপ্রকাশ দাশ অসিত, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সজল দত্ত, অ্যাড. বিপ্লব সেন, অর্থ সম্পাদক সুকান্ত মহাজন টুটুল, দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট টিপু শীল জয়দেব, সাংস্কৃতিক সম্পাদক দীপংকর দেবনাথ, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট গৌতম সিং হাজারী, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সংরক্ষণ সম্পাদক বাবুল দাশ তনয়, পূজা বিষয়ক সম্পাদক প্রিয়তোষ ঘোষ রতন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক স্ট্যালিন দে, সাজু চৌধুরী, সহ-গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক অ্যাডভোকেট রাজেশ বিশ্বাস, সহ-গণসংযোগ সম্পাদক বিশ্বজিৎ রায়, সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক অসীক দত্ত, কার্যকরি সদস্য লিটন দাশ, অজিত দে, রতন আচার্য্য, প্রকৌশলী অমিত ধর, রাহুল দত্ত, বিশ্বজিৎ চৌধুরী, অ্যাডভোকেট সুব্রত শীল রাজু, অর্পণ চক্রবর্তী, নিঝুম পারিয়াল, অমিত ঘোষ, দেবাশীষ চৌধুরী দেবু, কর্ণফুলী থানা পূজা পরিষদের সাবেক সভাপতি বাসু কুমার দে প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৬১৯ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০২১
এমআর/টিসি 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa