ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

জিয়াউর রহমানের জনপ্রিয়তা বাড়ায় আতঙ্কিত আওয়ামী লীগ: শামীম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২১
জিয়াউর রহমানের জনপ্রিয়তা বাড়ায় আতঙ্কিত আওয়ামী লীগ: শামীম ...

চট্টগ্রাম: বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম বলেছেন, আওয়ামী লীগের রাজনীতি এখন শুরু হয় শহীদ জিয়াউর রহমানকে নিয়ে। জিয়াউর রহমানের জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে, এটা নিয়ে আওয়ামী লীগ আতঙ্কে আছে।

যার কারণে জিয়াউর রহমানের মরদেহ নিয়ে, মুক্তিযুদ্ধের ভূমিকা নিয়ে কল্পকাহিনি রচনা করছে। জিয়াউর রহমান মহান স্বাধীনতার ঘোষক ও বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা। তিনি সব ক্ষেত্রে সফলতা অর্জন করেছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ অবৈধভাবে ক্ষমতায় আসার পর থেকে দুর্নীতি, দুঃশাসন আর লুটপাটে দেশের মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে গেছে।  

রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নগরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে চান্দগাঁও থানা বিএনপির মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মাহবুবের রহমান শামীম বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার মানুষের মৌলিক অধিকার হরণ করেছে। একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করে দেশকে পরাধীনতার শেকলে আবদ্ধ করে রেখেছে। দেশের মানুষ এ পরাধীনতার শৃঙ্খল ভাঙতে প্রস্তুত। তাই আমাদের সাংগঠনিক ঐক্য শক্তিশালী করে, আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার আপসহীন নেতৃত্বকে বুকে ধারণ করে তারেক রহমানের নেতৃত্বে দুর্বার গণআন্দোলনের মাধ্যমে এ সরকারের পতন ঘটাতে হবে।  

চাকসুর সাবেক নেতা এজিএস মাহবুবের রহমান শামীম বলেন, নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনতে হবে। কোনো দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হবে না এবং নির্বাচন কমিশন গঠন করতে দেওয়া যাবে না। নির্বাচন কমিশন গঠন করতে হবে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীন। বর্তমান নির্বাচন কমিশন থেকে শুরু করে অতীতে আওয়ামী লীগের অধীনে যারা নির্বাচন কমিশন ছিল, তারা সবাই আওয়ামী লীগের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করেছে। তাদের মতো অযোগ্য, একদলীয় নির্বাচন কমিশন বাংলাদেশের মানুষ আর চায় না। তাই আগামীতে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের প্রধান শর্ত হচ্ছে তত্ত্বাবধায়ক সরকার।

প্রধান বক্তার বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম নগর বিএনপি'র আহবায়ক ডা. শাহাদাত হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সদস্যসচিব আবুল হাশেম বক্কর, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সুফিয়ান ও চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সদস্য এরশাদ উল্লাহ, চট্টগ্রাম নগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক এমএ আজিজ, যুগ্ম আহবায়ক এসএম সাইফুল আলম, শফিকুর রহমান স্বপন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, ইস্কান্দার মির্জা, আহবায়ক কমিটির সদস্য সাবেক কাউন্সিলর মাহবুবুল আলম, জাহাঙ্গীর আলম দুলাল ও আনোয়ার হোসেন লিপু। চান্দগাঁও থানা বিএনপির সভাপতি সাবেক কাউন্সিলর মো. আজমের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক শরীফ উদ্দীন খানের পরিচালনায় বক্তব্য দেন নগর বিএনপি নেতা সৈয়দ সিহাব উদ্দীন আলম, অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, মো. বখতেয়ার, আবদুল আজিজ, শাহনেওয়াজ চৌধুরী মিনু প্রমুখ।  

বাংলাদেশ সময়: ২০১১ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১
এমআই/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa