ঢাকা, বুধবার, ১১ কার্তিক ১৪২৮, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় ভ্যাকসিনের সংকট কেটে গেছে: নওফেল

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫২ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২১
শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় ভ্যাকসিনের সংকট কেটে গেছে: নওফেল ত্রাণ বিতরণ করেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল

চট্টগ্রাম: শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, করোনার ভ্যাকসিনের যে সংকট ছিল তা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সফল কূটনৈতিক প্রচেষ্টায় কেটে গেছে। আগামী ৬ মাস থেকে ১ বছরের ভেতরে আমরা আশা করছি দেশের বেশিরভাগ মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া সম্ভব হবে।

আমাদের নেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যোগাযোগ করে কোটির বেশি ভ্যাকসিন সংগ্রহ করে ফেলেছেন। কারণ তিনি জানেন, ঘরের কর্মক্ষম লোকটা যদি মারা যায় তাহলে সেই পরিবার সারাজীবনের জন্য বেকার হয়ে যায়। যিনি বাইরে যান কাজ করতে, তিনি যদি করোনা হয়ে মারা যান তাহলে আর রক্ষা নেই। এ জন্য তিনি ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করছেন।  

বুধবার (১৪ জুলাই) নগরের পাঠানটুলীতে দ্বীন মোহাম্মদ কনভেনশন হলে নগর আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য ও ২৩ নম্বর পাঠানটুলী ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. জাবেদের পক্ষ থেকে কর্মহীন ৭০০ মানুষকে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষা উপমন্ত্রী এসব কথা বলেন।  

নওফেল বলেন, পবিত্র ঈদ-উল-আজহার কথা চিন্তা করে লকডাউন শিথিল করা হয়েছে। লকডাউন শিথিল করা হয়েছে বলে আপনারা যদি স্বাস্থ্যবিধি না মানেন তাহলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর একক প্রচেষ্টায় আমরা করোনা মোকাবেলা করতে পারব না। আমরা-আপনারা যদি সচেতন না হই, যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলি তাহলে করোনাকে কোনো ভাবেই নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব না।  

করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থেকে মুক্তি পেতে ভ্যাকসিন নেওয়ার এবং সবাইকে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে অনুরোধ জানান তিনি।

তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত নিম্নআয়ের মানুষকে সহায়তা প্রদানে গতকাল (১৩ জুলাই) ৩ হাজার ২০০ কোটি টাকা প্রণোদনা ঘোষণা করেছেন। ৫টি খাতে এ সহায়তা দেওয়া হবে। সবচেয়ে বেশি টাকা দেওয়া হবে গ্রামে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির জন্য। সরকারের বিভিন্ন বিশেষায়িত ব্যাংকের মাধ্যমে ১ হাজার ৫০০ কোটি টাকা ঋণ হিসেবে বিতরণ করা হবে। পর্যটন খাতের বিভিন্ন হোটেল, মোটেল ও থিম পার্কের কর্মচারীদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করার জন্য ১ হাজার কোটি টাকা ঋণ দেবে সরকার। তৃতীয় সর্বোচ্চ বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে দিনমজুর, পরিবহন শ্রমিক, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ও নৌ-পরিবহন শ্রমিকদের। এসব খাতে মোট ১৭ লাখের বেশি মানুষ রয়েছে। তাদের ২ হাজার ৫০০  টাকা করে দেওয়া হবে। শহর এলাকার নিম্নআয়ের মানুষকে সহায়তার জন্য ১৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। এর মাধ্যমে আগামী ২৫ জুলাই থেকে ৭ আগস্ট পর্যন্ত ১৪ দিন সারা দেশে চাল ও আটা বিতরণ করা হবে।

৩৩৩ ফোন নম্বরে কেউ ফোন করে খাদ্য সাহায্য চাইলে সহায়তা প্রদান করতে জেলা প্রশাসকদের ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার সরকার।

কাউন্সিলর মো. জাবেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন নগর আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য আরশেদুল আলম বাচ্চু, নগর আওয়ামী লীগের সদস্য দোস্ত মোহাম্মদ, ২৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম, ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহসিন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইদ্রিস কাজেমী, মোহাম্মদ হাসান, নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর, ওয়ার্ড সালিসি কমিটির চেয়ারম্যান মাহফুজুর রহমান, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতা ওয়াহিদুর রহমান মোহছেন, ডবলমুরিং থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিব হায়দার প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১৪ ঘণ্টা, জুলাই ১৪, ২০২১
এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa