ঢাকা, সোমবার, ২ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

নাতনিকে নির্যাতন করায় গৃহবধূর বিরুদ্ধে শাশুড়ির মামলা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩২ ঘণ্টা, জুলাই ৩, ২০২১
নাতনিকে নির্যাতন করায় গৃহবধূর বিরুদ্ধে শাশুড়ির মামলা ...

চট্টগ্রাম: আগুনে ধারালো ছুরি গরম করে নাতনিকে ছ্যাঁকা দিয়ে নির্যাতনের অভিযোগে শাশুড়ির করা মামলায় গৃহবধূ ও তার মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  

শনিবার (৩ জুলাই) সন্ধ্যায় বাংলানিউজকে এ তথ্য জানান পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জোবাইর সৈয়দ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ছেলের বউ সালেহা বেগম (২৬) এবং সালেহার মা কমলা বেগম (৫২)।

থানা সূত্রে জানা যায়, তাকওয়া ইসলাম ইভার মা মারা যাওয়ার পর তার বাবা সালেহাকে বিয়ে করেন। গত ২৪ জুন সকালে ইভাকে ময়লা ফেলতে বাইরে পাঠায় সৎমা সালেহা বেগম। এসময় শিশুর বাবা বাসায় ছিলেন না। ময়লা ফেলে ফিরতে দেরি হওয়ায় প্রথমে তাকে বকা ও মারধর করে। পরে সালেহা ও কমলা মিলে চুলার আগুনে ছুরি গরম করে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছ্যাঁকা দেন। বিষয়টি আড়াল করতে শিশুটিকে ৭দিন ধরে ঘরে আটকে রাখেন সৎমা সালেহা। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে শিশুর দাদি সাগরিকা বেগম (৫৪) বাদি হয়ে পতেঙ্গা থানায় মামলা করেন। পরে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করেন।  

পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জোবাইর সৈয়দ বাংলানিউজকে বলেন, মৃত সতীনের মেয়েকে নির্যাতনের অভিযোগে শুক্রবার রাতে পতেঙ্গা থানায় এসে অভিযোগ করেন মেয়ের দাদি। রাতে অভিযান চালিয়ে জড়িত সৎমা সালেহা ও তার মা কমলাকে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া গরম ছ্যাঁকা দেওয়ার কাজে ব্যবহৃত ছুরিটি উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার সকালে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ২১১৩ ঘণ্টা, জুলাই ০৩, ২০২১
এমএম/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa