ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ মাঘ ১৪২৭, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

বাংলাদেশকে আফগানিস্তান-পাকিস্তান হতে দেবো না: নওফেল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২০
বাংলাদেশকে আফগানিস্তান-পাকিস্তান হতে দেবো না: নওফেল বক্তব্য দেন মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। ছবি: উজ্জ্বল ধর

চট্টগ্রাম: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে শুরু করে সবখানে বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য একটি চক্র উঠে পড়ে লেগেছে মন্তব্য করে শিক্ষা উপ-মন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, বাংলাদেশকে আফগানিস্তান-পাকিস্তান হতে দেবো না।

নওফেল বলেন, বাংলাদেশ অস্থিতিশীল হলে অনেক অস্ত্র ব্যবসায়ীর লাভ।

তারা এখানে অস্ত্র ব্যবসা করবে। আফগানিস্তানে করে যেমন। আমরা বাংলাদেশকে আফগানিস্তান, পাকিস্তান হতে দেবো না।  

তিনি বলেন, আমরা বাংলাদেশকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ২০৪১ সালের মধ্যে একটা উন্নত বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলবো। সেখানে আমাদের সমৃদ্ধি হবে। সেখানে সহনশীলতা থাকবে। সেখানে শান্তি থাকবে।

শুধু পয়সা ইনকাম করলে শান্তি আসে না। পৃথিবীর অনেক দেশে অনেক অর্থ আছে, কিন্তু শান্তি নেই। স্থিতিশীলতা না থাকলে মানুষে মানুষে সদ্বভাব না থাকলে, বৈষম্য বেশি থাকলে শান্তি আসে না। যোগ করেন তিনি।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) দুপুরে নগরের চান্দগাঁও এলাকায় শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইনকিউবেশন সেন্টার নির্মাণকাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন নওফেল।  

নওফেল বলেন, সকল পর্যায়ে আমাদের সংবিধানে নির্দেশিত মূলনীতিগুলোর চর্চা করতে হবে। জাতির পিতা সহনশীল, ধর্ম নিরপেক্ষ সমাজের স্বপ্ন দেখিয়ে এই দেশকে স্বাধীন করেছিলেন। তার আদর্শ যদি আজকে ভুলন্ঠিত হয়, তাহলে কোনো বিনিয়োগের সুফল আমরা পাবো না।  

কারণ অরাজকতা, অস্থিতিশীলতা, হানাহানি, সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় এই বাংলাদেশ ভরে যাবে। তাই নিজেদেরকে শিক্ষিত এবং প্রশিক্ষিত করার মাধ্যমে অর্থনৈতিক সম্ভাবনার যে দুয়ার শেখ হাসিনার সরকার খুলে দিয়েছে, সেখানে আমাদের ঢুকে পড়তে হবে। নিজেদের উন্নত করতে হবে। বলেন তিনি।

ধর্ম নিয়ে রাজনীতি না করার আহ্বান জানিয়ে নওফেল বলেন, রাসুলের (স.) কোনো হাদিসে আপনারা দেখবেন না- তিনি বলেছেন যে, দ্বীন কায়েম করার জন্য রাজনীতি করো। কিন্তু আজকে অনেকে এটা করছে। এটা করে আমাদের যুব সমাজকে অন্ধকারের দিকে ঠেলে দিচ্ছে, আমাদের নারী সমাজকেও এই বিষয়টা নানানভাবে মস্তিষ্কে ঢুকিয়ে দিয়ে তাদের পিছিয়ে দিচ্ছে।

তিনি বলেন, দ্বীন ইসলামের নামে কেনো রাজনীতি করা যাবে না- এটা আমার কাছে যদি কেউ প্রশ্ন রাখে তাহলে বলবো- ঈমানের প্রশ্নে কোনো দ্বিমত করা যায় না। ঈমান ঈমান।  

নওফেল বলেন, রাজনীতি করলে মত থাকবে, দ্বিমত থাকবে, আপনার একটা কথা থাকবে, আমার একটা কথা থাকবে, বাদ-প্রতিবাদ থাকবে। কিন্তু দ্বীনের প্রশ্নে, ইসলামের প্রশ্নে কি আমরা কোনো দ্বিমত করতে পারি? সেটা নিয়ে কি কোনো বিরোধিতা করতে পারি?

আমার দ্বীন, আমার ঈমান, এটা আমার জন্য অত্যন্ত পবিত্র। আমার ব্যক্তিগত বিষয়। এর মাধ্যমে মহান আল্লাহর সঙ্গে আমার রুহানী সম্পর্ক তৈরি হয়। এটা নিয়ে আমি রাজনীতি করতে পারি না। বলেন শিক্ষা উপ-মন্ত্রী নওফেল।

ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করা পরাজিত শক্তির উত্থান ঠেকাতে মারমুখী আচরণ নয়, তাদের যুক্তি দিয়ে বুঝানোর আহ্বান জানান নওফেল। তিনি বলেন, মারমুখী হওয়ার দরকার নেই। আমরা যুক্তি দিয়ে, আলোচনার মাধ্যমে তাদের বুঝাবো। এই পরাজিত শক্তির উত্থান আমরা হতে দেবো না।  

স্থানীয় সংসদ সদস্য মোছলেম উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। বিশেষ অতিথি ছিলেন, চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন, প্রকল্প পরিচালক মো. মোস্তফা কামাল, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. মিজানুর রহমান।

আরও খবর>>
** 
শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং সেন্টার নির্মাণকাজ উদ্বোধন করলেন পলক

বাংলাদেশ সময়: ১৬০০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০২০
এমআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa