ঢাকা, বুধবার, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ সফর ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

শতভাগ যাত্রী নিয়ে যাত্রার প্রথম দিনেই যাত্রী সংকট রেলে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৪ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০
শতভাগ যাত্রী নিয়ে যাত্রার প্রথম দিনেই যাত্রী সংকট রেলে শতভাগ যাত্রী নিয়ে যাত্রার প্রথম দিনে ট্রেনে উঠছেন যাত্রীরা।

চট্টগ্রাম: প্রায় ৫ মাস পর শতভাগ যাত্রী নিয়ে যাত্রার প্রথম দিনেই যাত্রী সংকটে ভুগেছে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে যাওয়া প্রতিটি ট্রেন।  

সাধারণ যাত্রীরা রেলের হঠাৎ নেওয়া এই সিদ্ধান্ত সম্পর্কে অবগত না থাকায় ভিড় ছিল না চট্টগ্রাম রেলস্টেশনে।

যার প্রভাব পড়েছে বিভিন্ন অঞ্চলের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া ট্রেনগুলোতে।

বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা থেকে কাউন্টারে শুরু হয় টিকিট বিক্রি। আর অনলাইনে শুরু হয় ভোর ৬টা থেকে।  

সূত্র জানায়, শতভাগ টিকিটের মধ্যে ৫০ শতাংশ কাউন্টারে এবং ৫০ শতাংশ অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে। তবে প্রথম দিনে এ দুটি মাধ্যমে টিকিট বিক্রি হয়েছে ৬০ শতাংশেরও কম।  

সকাল ৭টায় চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া সুবর্ণ এক্সপ্রেসে ৮৯৯টি আসন থাকলেও যাত্রী শূন্য ছিল ৪৬৬টি আসন।  

একই অবস্থা ছিল সকাল ৯টায় সিলেটের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া পাহাড়িকা, বিকাল ৫টা ২০ মিনিটে চাঁদপুরের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া মেঘনা ও সকাল সাড়ে ৮টায় ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া চট্টলা এক্সপ্রেস ও বিকাল ৫টার সোনার বাংলা ট্রেনে।  

পাহাড়িকা ট্রেনে ৬২৬টি আসনের মধ্যে ফাঁকা ছিল ২৪৭টি, মেঘনা এক্সপ্রেসে ৯২৯টি আসনের মধ্যে ফাঁকা ছিল ২৬৪টি, সোনার বাংলা ট্রেনে ৫৮৪টি আসনের মধ্যে ফাঁকা ছিল ২৯০টি এবং চট্টলা এক্সপ্রেসে ৫৭৯টি আসনের মধ্যে ফাঁকা ছিল ১০৪টি।  

বুধবার সকাল ৯টায় চট্টগ্রাম রেলস্টেশনে গিয়ে দেখা যায়, ৮টি কাউন্টারের মধ্যে ৬টি কাউন্টারে কোনো যাত্রী ছিলেন না। যে দুটিতে যাত্রী ছিলেন, তারা সবাই লোকাল ট্রেনের টিকিটের জন্য এসেছিলেন। অগ্রিম টিকিটের জন্য তেমন কোনো যাত্রী কাউন্টারে আসেননি।

রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা মো. আনসার আলী বাংলানিউজকে বলেন, বুধবার থেকে কাউন্টারে টিকিট বিক্রি শুরু হওয়ার তথ্য এখনও সবার কাছে পৌঁছেনি।  

‘বিশেষ করে দিনমজুর ও যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করতে জানেন না তারা কাউন্টারে টিকিট বিক্রির খবর এখনও জানেন না। তাই প্রথমদিন কাউন্টার ফাঁকা এবং টিকিট বিক্রিও কম। ’  

একই মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনের ব্যবস্থাপক রতন কুমার চৌধুরী। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন পর কাউন্টারে টিকিট বিক্রি শুরু হওয়ার বিষয়টি এখনও আমজনতার কাছে পৌঁছেনি। তাই টিকিট বিক্রি কম।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫০ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২০
জেইউ/এমআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa