ঢাকা, সোমবার, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ সফর ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

চমেক ভেনম রিসার্চ সেন্টার পরিদর্শনে ডা. মো. সাজ্জাদ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৮ ঘণ্টা, আগস্ট ৬, ২০২০
চমেক ভেনম রিসার্চ সেন্টার পরিদর্শনে ডা. মো. সাজ্জাদ চমেকে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ডা. মো. সাজ্জাদ হোসেন

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য অধ্যাপক ডা. মো. সাজ্জাদ হোসেন। এ সময় হাসপাতালের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ শামীম হাসান তাকে স্বাগত জানান।

বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) তিনি হাসপাতালের ভেনম রিসার্চ সেন্টার পরিদর্শনে যান। পরিদর্শনকালে তিনি সেন্টারের গবেষণাগার, সারপেটারিয়াম (সাপ পালনের কক্ষ), কোয়ারেন্টাইন কক্ষ, এবং ইঁদুর প্রজনন কক্ষ ঘুরে দেখেন।  

ভেনম রিচার্স সেন্টারের গবেষক অধ্যাপক ডা. অনিরুদ্ধ ঘোষ, অধ্যাপক ডা. মো. আবদুস সাত্তার, ডা. আবদুল্লাহ আবু সাঈদ সেন্টারের 
এন্টিভেনম তৈরির প্রক্রিয়া ও অন্যান্য বৈজ্ঞানিক গবেষণাসমূহ ব্যাখ্যা করেন।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের পুরোনো অ্যাকাডেমিক ভবনের নিচতলায় ২০১৮ সালে স্থাপিত ভেনম রিসার্চ সেন্টারটি বাংলাদেশে বিষধর সাপসমূহের বিষের বিরুদ্ধে এন্টিভেনম তৈরির উদ্দেশ্যে স্বাস্থ্য অধিদফতরের নন-কমিউনিকেবল ডিসিজ কন্ট্রোলের (এনসিডিসি) একটি বৈজ্ঞানিক প্রকল্প।  

এ প্রকল্পের অধীন, নোসেলেট কোবরা, বিনোসেলেট কোবরা, বানডেড ক্রাইট, ডব্লিউএলপি ভাইপার, এসটিপি ভাইপার, রাসেল’স ভাইপার, জি ব্ল্যাক ক্রাইট, কমন ক্রাইট, লাল গলার কিলব্ল্যাক নামে বিষধর সাপ লালন পালন করা হচ্ছে।

৭ প্রজাতির ১৩৭টি সাপকে খাবার হিসেবে ইঁদুর, মুরগির মাংস এবং সাপ দেওয়া হয়। ওই কক্ষে কাচঘেরা জায়গায় ইঁদুর পালন করা হচ্ছে। এসব সাপ ও সাপের বিষ সংগ্রহ প্রক্রিয়া সম্পর্কে অধ্যাপক ডা. মো. সাজ্জাদ হোসেনকে অভিহিত করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২১১৪ ঘণ্টা, আগস্ট ৬, ২০২০
এমএম/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa