bangla news

চট্টগ্রামে প্রথমবারের মতো করোনা রোগীর শরীরে প্লাজমা থেরাপি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০৫-২৭ ১২:২৫:৪৮ এএম
ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এক চিকিৎসকের শরীরে প্রথমবারের মতো প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ মে) সন্ধ্যা ৭টার দিকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই চিকিৎসককে প্লাজমা থেরাপি দেওয়া হয়।

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ওই চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের অর্থোপেডিক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক।

সম্প্রতি করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা মো. তারেক নামে এক ব্যক্তির শরীর থেকে প্লাজমা সংগ্রহ করে তা ওই চিকিৎসকের শরীরে প্রয়োগ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন চমেকের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক অনিরুদ্ধ ঘোষ।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আমরা আজ একটি প্লাজমা দিয়েছি। ২৪ ঘণ্টা পর বোঝা যাবে রোগীর অবস্থা। রক্তে অক্সিজেনের লেভেল বজায় রাখতে রোগীর শরীরে অতিরিক্ত অক্সিজেন সাপোর্ট প্রয়োজন ছিলো। তাই প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ঢাকায় ইতোমধ্যে প্লাজমা থেরাপি ব্যবহার করা হচ্ছে। যদি এতে ভালো ফলাফল পাওয়া যায়- তাহলে আমরাও চট্টগ্রামে প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগের চেষ্টা করবো।

পরীক্ষামূলকভাবে এটি করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে অনিরুদ্ধ ঘোষ বলেন, এটি পরীক্ষামূলক বলা যাবে না। পরীক্ষামূলক করতে গেলেও যেসব বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি অনুসরণ করা দরকার ছিল তা করা সম্ভব হয়নি।

কারণ এটি করতে গেলে আমাদের দেরি হয়ে যাচ্ছিল। আর রোগীকে খারাপ অবস্থায় দিয়ে দেওয়ার চেয়ে প্লাজমা থেরাপি দিয়ে কোনো ফল পাওয়া গেলে ভালো।

করোনা পজেটিভ ওই চিকিৎসক গত ২১ মে থেকে চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আজ সকাল থেকে তাকে অতিরিক্ত অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়। পরে সন্ধ্যার দিকে ২৫০ মিলিলিটার প্লাজমা দেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১২২০ ঘণ্টা, মে ২৬, ২০২০
এমএম/টিসি

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-05-27 00:25:48