bangla news

রফতানি পণ্য চোর চক্রের ১০ সদস্য গ্রেফতার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০২০-০২-২২ ৩:৫৭:০১ পিএম
রফতানি পণ্য চোর চক্রের ১০ সদস্য।

রফতানি পণ্য চোর চক্রের ১০ সদস্য।

চট্টগ্রাম: টানা দুইদিনের অভিযানে কাভার্ডভ্যান থেকে রফতানি পণ্য চোর চক্রের ১০ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের কাছ থেকে তিনটি কাভার্ডভ্যান থেকে চুরি হওয়া ৪ হাজার ৬৫৭ পিস শার্ট ও ১ হাজার ৫২০ পিস প্যান্ট উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) তাদের গ্রেফতারের বিষয়টি জানানো হয়।

গ্রেফতার ১০ জন হলো- মো. সুমন (৩১), মো. ইউসুফ (৩৫), মো. তাজুল ইসলাম হাসান (২২), মো. রুবেল হোসেন (২০), মো. সুমন (১৯), মো. বোরহান (২৬), মো. নুরু নবী প্রকাশ সোহাগ (৪০), মো. মাসুদ (৩০), মো. মাহাবুবর রহমান প্রকাশ শাওন (৩২) ও মো. সাইফুল ইসলাম প্রকাশ রিপন (২৩)।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পু্লিশের (সিএমপি) অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (বন্দর) মো. আরেফিন জুয়েল বাংলানিউজকে বলেন, কাভার্ডভ্যান থেকে রফতানি পণ্য চোর চক্রের ১০ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে তিনটি কাভার্ডভ্যান থেকে চুরি হওয়া ৪ হাজার ৬৫৭ পিস শার্ট ও ১ হাজার ৫২০ পিস প্যান্ট উদ্ধার করা হয়েছে। এসব পণ্য রফতানির জন্য কাভার্ডভ্যানে করে ঢাকার সাভার থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে নিয়ে আসা হচ্ছিল।

উদ্ধারকৃত বস্তাভর্তি কাপড়।আরেফিন জুয়েল জানান, আসামিরা কয়েকজন কাভার্ডভ্যানের হেলপার হিসেবে চাকরি করেন। এর আড়ালে তারা কাভার্ডভ্যান থেকে পরিবহনের সময় রফতানিযোগ্য পণ্য চুরি করে বাইরে বিক্রি করেন।

তিনি বলেন, ইপিজেড থানার সামনে কাভার্ডভ্যান থেকে চুরি করার সময় হাতেনাতে একজনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার কাছ থেকে তথ্য পাওয়া যায় আরও গাড়ি থেকে এভাবে চুরি করা হয়েছে। ১৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকার সাভার পার্ল গার্মেন্টস থেকে ৪০৩ কার্টুনে ৯ হাজার ৮০১ পিচ শার্ট কিউএনএস কন্টেইনার ডিপোতে নিয়ে আসার পথে ঢাকার ডেমরা এলাকায় গাড়ি থেকে চুরি করে কিছু শার্ট রেখে দেওয়া হয়। পরে কিউএনএস ডিপোতে চেক করে পণ্য কম পাওয়া গেলে পুলিশ বিষয়টি নিয়ে তদন্তে নেমে জড়িত আসামিদের গ্রেফতার করে।

কসমোপলিটন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড নামে সাভারের আরও একটি প্রতিষ্ঠানের পণ্য আনার সময় একই কায়দায় তারা চুরি করে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা আরেফিন জুয়েল।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫১ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০
এসকে/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   চট্টগ্রাম
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Alexa
cache_14 2020-02-22 15:57:01